ঢাকা, শনিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

বিনোদন

বিশ বছর পর প্রেক্ষাগৃহে সিনেমা দেখবেন কাশ্মীরবাসী!

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৩৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২১, ২০১৯
বিশ বছর পর প্রেক্ষাগৃহে সিনেমা দেখবেন কাশ্মীরবাসী! আশির দশকে কাশ্মীরে হলের সামনে দর্শকের ভিড়

একটা সময় সিনেমা হলে রমরমা ছিলো কাশ্মীর। ৮০’র দশকে ১৫টি সিনেমা হল ছিলো কাশ্মীরে। এরমধ্যে শ্রীনগরে ছিলো ৯টি। কিন্তু জঙ্গিদের হামলা-মামলার মুখে সিনেমা হলগুলো বন্ধ হয়ে যায়। 

সম্প্রতি হলগুলো ফের চালু করার উদ্যোগ নিয়েছে ‘দিল্লি পাবলিক স্কুল’র কর্ণধার বিজয় ধর। এক সময় ব্রডওয়ে সিনেমার মালিক ছিলেন বিজয়।

এককথায় দারুণ সিনেমাপ্রেমী মানুষ তিনি।

বন্ধ সিনেমা হলগুলো চালু করার উদ্যোগ নেওয়ার কারণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেশের বিভিন্ন প্রান্তে সিনেমাপ্রেমীরা সিনেমা দেখার সুযোগ আছে, কিন্তু এখানে নেই। এটা দুঃখজনক। এখানেও থাকা উচিত। কেউ সিনেমা দেখতে না চাইলে সেটা অন্য বিষয়। যারা দেখতে চান, তাদের এই সুযোগটা করে দেওয়া আমাদের কর্তব্য।  

ইসলাম-বিরোধী যুক্তি দিয়ে ১৯৮৯ সালে কাশ্মীরে- সিনেমা, বার ও বিউটি পার্লার বন্ধের আন্দোলন চালান জঙ্গিরা। এসবের সঙ্গে সম্পৃক্তদের খুনের হুমকিও দেয় তারা। যে কারণে ধীরে ধীরে হলগুলো বন্ধ হয়ে যায়।

১৯৯৬ সালে সরকারের আশ্বাস পেয়ে তিনটি হলের মালিকেরা ফের সিনেমা দেখানো শুরু করেন। নিরাপত্তাও জোরদার করা হয়েছিলো। কিন্তু ১৯৯৯ সালে রিগ্যাল সিনেমায় জঙ্গিরা হামলা চালায়। সেখানে একজন দর্শক নিহত হন এবং অনেকে আহত হন। এরপর থেকে হলগুলো একেবারেই বন্ধ হয়ে যায়।

দীর্ঘ দুই দশক পর সেখানে আবার হলগুলো চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। যদিও এখনো জঙ্গিদের হুমকি অব্যাহত আছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২১, ২০১৯
ওএফবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।