ঢাকা, শুক্রবার, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০, ০১ মার্চ ২০২৪, ১৯ শাবান ১৪৪৫

বিনোদন

হজে যেতে চান মৌসুমী, মৃত্যুর পর চান না কেউ লাশ দেখুক

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২৩
হজে যেতে চান মৌসুমী, মৃত্যুর পর চান না কেউ লাশ দেখুক আরিফা জামান মৌসুমী

ঢাকাই সিনেমার প্রিয়দর্শিনী অভিনেত্রী আরিফা জামান মৌসুমী। ইতোমধ্যেই অভিনয় জীবনের ৩০ বছরে পূর্ণ করছেন এই অভিনেত্রী।

এই সময়ে যেমন হয়েছেন প্রশংসিত, তেমনই পেয়েছেন ভালোবাসা আর অসীন হয়েছেন শ্রদ্ধার জায়গায়।

এবার বেসরকারি টেলিভিশনের ‘১৩টি প্রশ্ন’ শিরোনামের আয়োজনে বেশ কয়েকটি ইচ্ছার কথার জানিয়েছেন এই অভিনেত্রী। সেই তালিকায় আছে, মারা যাওয়ার পর তার লাশ যেন কাউকে দেখতে দেওয়া না হয়, দশর্কদের কাছে থাকা ছবি ডিলিট করাসহ বেশ কয়েকটি বিষয়।

মৌসুমীকে উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয় প্রশ্ন রাখেন, ক্যামেরার সামনে শেষ কথা হলে সেটা কী বলতে চান?

এমন প্রশ্নে মৌসুমী বলেছেন, প্রথমত আমি বলব আমি যদি মরে যাই আমার সব ভুলের জন্য ক্ষমা চাই সবার কাছে। ক্ষমা করে দিবেন। আমার কয়েকটি ইচ্ছে আছে, একটি হলো আমি মারা যাবার পর আমার লাশ যেন কাউকে দেখতে দেওয়া না হয়। যেন খুব সিক্রেটলি কবর দেওয়া হয়। জানাজা হবে। কিন্তু আমি চাই না আমাকে আর কেউ দেখুক।

মৃত্যুর আগে হজে যাওয়ার ইচ্ছার কথা জানিয়ে মৌসুমী বলেন, আমি মারা যাবার আগে বড় হজ করতে চাই। আমি যেন হজ করতে পারি সেজন্য সবাই দোয়া করবেন।

ওই প্রশ্নের উত্তরে মৌসুমী আরো বলেন, আমি মারা যাবার পর টিভিতে ধুমধাড়াক্কা ছবি এবং দশর্কদের কাছে অনেক ছবি রয়ে গেছে সেগুলো ডিলিট করে দিবেন। তবে ছবি যদি সংগ্রহ করতে হয় তাহলে মৌসুমী আর্কাইভে আলাদা ভাবে সংরক্ষণ করতে হবে। সেখানেই সবাই আমার সব কিছু জমা দিয়ে দিবেন। যদি ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য আমার কোন কাজ মনে হয় আর্কাইভে রাখলে ভালো হবে বা গবেষণার কাজে আসবে তবে সে উদ্দেশ্যই ছবিগুলো সংরক্ষণ হবে। অবশ্যই বাছাইকৃত ছবিগুলো জমা দেওয়া হবে, এছাড়া অন্য সব কিছু ডিলিট করে দিলে ভালো হবে।

শেষদিকে এই চিত্রনায়িকা আরো বলেছেন, এছাড়া আমার কিছু উদ্দেশ্য রয়েছে। যেমন আমার কিছু সাংগঠনিক ভাবে মৌসুমী ওয়েলফেয়ারের মাধ্যমে যেসব কাজ করার উদ্দেশ্য রয়েছে আমার সব ভক্তদের অনুরোধ করবো এটাকে সব সময় সচল রাখার জন্য।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৯ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২৩
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।