ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২৩ শাবান ১৪৪৫

বিনোদন

যে গল্প পড়ে কেঁদে ফেলেছিলেন মিম

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৩
যে গল্প পড়ে কেঁদে ফেলেছিলেন মিম বিদ্যা সিনহা মিম

এবার ইয়াসমিন হয়ে পর্দায় আসছেন অভিনেত্রী বিদ্যা সিনহা মিম। সত্য ঘটনা অবলম্বনে নতুন সিনেমা নির্মাণ করছেন সুমন ধর।

যেখানে মূল চরিত্রে অভিনয় করবেন মিম। সেই সিনেমার নাম ‘আমি ইয়াসমিন বলছি’।

জানা গেছে, আগামী এপ্রিলে শুরু হবে সিনেমার শুটিং। আর গল্পের প্রয়োজনে দিনাজপুরে হবে এর দৃশ্যধারণ। ঢাকাতেও হবে এর কিছু অংশের কাজ।

মিমের ভাষ্য, ‘পরাণ’র সাফল্যের পর প্রচুর কাজের অফার আসছে। তবে একটু ভেবে-চিন্তে কাজে যুক্ত হচ্ছি। এই সিনেমার গল্পটা পড়ে কেঁদে ফেলেছিলাম আমি। এমন হৃদয়স্পর্শী, নৃশংস ঘটনা। সেজন্যই এতে যুক্ত হওয়া।

এদিকে, মিম বর্তমানে আছেন পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ায়। সেখানে তিনি অভিনয় করছেন টলিউড সুপারস্টার জিতের সঙ্গে ‘মানুষ’ নামের একটি সিনেমায়। এটি পরিচালনা করছেন বাংলাদেশের সঞ্জয় সমদ্দার। বর্তমানে সিনেমার শেষ লটের শুটিং চলছে।

উল্লেখ্য, ১৯৯৫ সালের ২৩ আগস্ট রাতে ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া একটি বাসে করে দিনাজপুরের দশমাইল মোড় এলাকায় নামেন ইয়াসমিন আক্তার নামের এক কিশোরী। তার বয়স ছিল আনুমানিক ১৬ বছর। ওই এলাকায় একটি পানের দোকানের সামনে তিনি অপেক্ষা করছিলেন দিনাজপুরগামী বাসের জন্য। সে সময় টহল পুলিশের একটি ভ্যান আসে এবং একপ্রকার জোর করেই তাকে দিনাজপুরে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে নিয়ে যায়। পরদিন সকালে কিশোরীটির মৃতদেহ পাওয়া যায় গোবিন্দপুর নামক জায়গায়।

ওই ঘটনায় দিনাজপুরের মানুষ ক্ষুব্ধ হয়ে রাস্তায় নেমে আসে। আন্দোলন গড়ে তোলে। সেই আন্দোলনে আবার পুলিশ গুলি চালায়। সেসময় নিহত হয় ৭ জন মানুষ, আহত দুই শতাধিক। এর ফলে প্রতিবাদের ফুলকি ছড়িয়ে যায় গোটা দেশে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৫, ২০২৩
এনএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।