ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন ও ইসি

নির্বাচন: সিলেটের ৪ জেলার ৩টিতে নতুন মুখ আ.লীগের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১১৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২
নির্বাচন: সিলেটের ৪ জেলার ৩টিতে নতুন মুখ আ.লীগের

সিলেট: জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে সিলেটের চার জেলায় নৌকার প্রার্থী হিসেবে তিন নতুন মুখ বেছে নিল আওয়ামী লীগ।

শনিবার (১০ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৪টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগ-এর সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের যৌথসভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন 
আওয়ামী লীগের সংসদীয় ও স্থানীয় সরকার জনপ্রতিনিধি মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  

মনোনয়ন বোর্ডের এ সভায় জেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীদের নাম ঘোষণা করা হয়।  

বোর্ডের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, জেলা পরিষদ নির্বাচনে সিলেটে চেয়ারম্যান পদে নৌকার প্রার্থী হিসেবে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খানকে বেছে নিয়েছে কেন্দ্র।  

এছাড়া মৌলভীবাজার জেলা পরিষদ নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, বর্তমান প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান।  

হবিগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য, জেলার সাবেক সভাপতি ও প্রশাসক, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ স্বাচিপ ও বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) সভাপতি ডা. মুশফিক হুসেন চৌধুরী।

এছাড়া সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেয়েছেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও সরকারি কৌঁসুলি (পিপি) অ্যাডভোকেট খায়রুল কবির রুমেন। দলীয় সূত্রে এসব তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।  

সিলেট জেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অ্যাডভোকেট মো. নাসির উদ্দিন খানকে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয়।  

অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান নিজেই দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

দলের মনোনয়ন পেতে তার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ছিলেন সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাদ উদ্দিন আহমদ, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি বিজিত চৌধুরী ও বর্তমান প্রশাসক কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জয়নাল আবেদীন। অবশেষে তাদের পেছনে ফেলে চমক দেখালেন অ্যাডভোকেট নাসির উদ্দিন খান। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে দল তার ওপরই ভরসা রাখল।  

সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি প্রয়াত অ্যাডভোকেট লুৎফুর রহমান দলীয় টিকিটে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছিলেন। তার মৃত্যুর পর পদটি শূন্য ছিল। ফলে জেলা পরিষদের প্রথম প্যানেল চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন প্রশাসক হিসেবে নিয়োগ পান। এবার নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে তিনিও দলের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। কিন্তু পাননি।  

হবিগঞ্জ: এ জেলায় আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদের সদস্য, জেলার সাবেক সভাপতি ও প্রশাসক, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ স্বাচিপ ও বিএমএর সভাপতি, ডা. মুশফিক হুসেন চৌধুরী। তার সঙ্গে মনোনয়ন চেয়েছিলেন, দলের জাতীয় পরিষদের সদস্য, হবিগঞ্জ পৌরসভার ৫ বারের সাবেক চেয়ারম্যান, হবিগঞ্জ সড়ক শ্রমিক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও নবীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আলমগীর চৌধুরী। তবে দল ডা. মুশফিক হুসেন চৌধুরীকে মনোনয়ন দিয়েছে।

মৌলভীবাজার: এ লায় দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান, বর্তমান প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিছবাহুর রহমান। জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র ফজলুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  

মিসবাহুর রহমান ছাড়াও দলীয় মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি এম এ রহিম শহীদ (সিআইপি), জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাসুদ আহমদ, সহ-সভাপতি মুহিবুর রহমান তরফদার ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুর রহমান বাবুল। তবে শেষ পর্যন্ত মিসবাহুর রহমানকে চেয়ারম্যান পদে বেছে নিল আওয়ামী লীগ।

সুনামগঞ্জ: জেলা পরিষদে দলীয় মনোনয়ন পেলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ও পিপি খায়রুল কবির রুমেন। তিনি দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার বিষয়ে বলেন, দলের পক্ষ থেকে বার্তা ও ফোন দিয়ে জানিয়েছেন দায়িত্বশীলরা।

তিনিসহ দলীয় মনোনয়নপত্র কিনেছিলেন ছয় নেতা। অন্যরা হলেন- সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও বর্তমান প্রশাসক, সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল হুদা মুকুট, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মতিউর রহমান, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক সংরক্ষিত সংসদ সদস্য সামছুন নাহার বেগম শাহানা, জেলা পরিষদের সদস্য সৈয়দ তারিক হাসান দাউদ ও চন্দনা রানী।

আগামী ১৭ অক্টোবর সিলেটসহ দেশের ৬১টি জেলা পরিষদের ভোট অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচন কমিশন (ইসি) গত ২৩ আগস্ট নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেছে। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর। বাছাই ১৮ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৫ সেপ্টেম্বর এবং প্রতীক বরাদ্দ ২৬ সেপ্টেম্বর।

বাংলাদেশ সময়: ০১১৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১০, ২০২২
এনইউ/এসআরএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa