ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ মাঘ ১৪২৮, ২০ জানুয়ারি ২০২২, ১৬ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

নাসিকের ১০ ওয়ার্ডে আলোচনায় কাউন্সিলর প্রার্থী যারা!

মাহফুজুর রহমান পারভেজ, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭১০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৪, ২০২১
নাসিকের ১০ ওয়ার্ডে আলোচনায় কাউন্সিলর প্রার্থী যারা!

নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করার পর থেকেই মাঠে নেমে পড়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর ও নতুন প্রার্থীরা। অনেকেই ইতোমধ্যে আটঘাট বেধেই শুরু করেছেন প্রচার-প্রচারণা।

প্রতিদিনই চলছে উঠান বৈঠক।  

নির্বাচনের মাঠ দখলে রাখতে ও ভোটারদের কাছে টানতে নিত্য নতুন কৌশলে মানুষের কাছে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। এর মধ্যে বিএনপি ও আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ছাড়াও অন্য দল ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও রয়েছেন।

এদিকে নাসিকের সিদ্ধিরগঞ্জের ১ থেকে ১০ নম্বর ওয়ার্ডে খোঁজ-খবর নিয়ে জানা গেছে, এই ওয়ার্ডগুলোতে নির্বাচনে অর্ধশতাধিক প্রার্থী মাঠে নেমেছেন। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্যদের নাম চলে এসেছে আলোচনায়।  

জানা যায়, ১ নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনের মাঠে লড়ছেন বর্তমান কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা ওমর ফারুক, আব্দুর রহিম, আনোয়ার ইসলাম, মাহমুদুর রহমান, জাহিদ হোসেন, বাদশা আলমগীর। এ ওয়ার্ডটি মিজিমিজি পূর্ব, পাগলাবাড়ি, মুজিববাগ, পাইনাদী নতুন মহল্লা, সিআই খোলা ও হিরাঝিল এলাকা নিয়ে গঠিত।

২ নম্বর ওয়ার্ডে নির্বাচনের মাঠে লড়ছেন বর্তমান কাউন্সিলর বিএনপি নেতা মো. ইকবাল হোসেন, হাজী সুমন কাজী, আবুল হোসেন, আমিনুল হক রাজু, শফিকুল ইসলাম শফিক, মো. গিয়াস উদ্দিন টুলু, আবদুল হেকিম, এনায়েত হোসেন, মাসুম রানা। এ ওয়ার্ডটি মৌচাক, মিজমিজি শাহেবপাড়া, রহিম মার্কেট, কান্দাপাড়া, চৌধুরীপাড়া ও মিজমিজি দক্ষিণপাড়া এলাকা নিয়ে গঠিত।

৩ নম্বর ওয়ার্ডে প্রতিদ্বন্দ্বীরা করছেন বর্তমান থানা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ও ৭ খুনের মামলার ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত প্রধান আসামি নূর হোসেনের ভাতিজা কাউন্সিলর শাহ জালাল বাদল, মো. আহমেদ খসরু, মো. আলমগীর হোসেন, তোফায়েল হোসেন, মহিউদ্দিন মোল্লা, নুরুল আজিজ চৌধুরী। এ ওয়ার্ডটি পশ্চিম সানারপাড়, নিমাইকাসারী, বাঘমারা, নয়াআটি মুক্তিনগর, রসূলবাগ, আদর্শনগর ও পূর্ব নিমাইকাসারী এলাকা নিয়ে গঠিত।  

৪ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর জেলা ছাত্রলীগের সাবেক ক্রীড়া সম্পাদক আরিফুল হক হাসানের সঙ্গে নির্বাচনের মাঠে নেমেছেন, মিয়া মো. নুরুদ্দীন, মো. নজরুল ইসলাম, ফয়সাল রানা, সুমন মাহমুদ। এ ওয়ার্ডটি শিমরাইল, উত্তরপাড়া, টেকপাড়া, আটি অবদা কলোনী, উত্তর আজিবপুর, সিদ্ধিরগঞ্জ হাউজিং, ভূমিপল্লী ছাপাখানা ও বৌ বাজার এলাকা নিয়ে গঠিত।

৫ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর বিএনপির সাবেক সংসদ সদস্য গিয়াসউদ্দিনের ছেলে গোলাম মোহাম্মদ সাদরিলের সঙ্গে নির্বাচনে মাঠে লড়ছেন, মো. আনিছুর রহমান, রমজান আলী, জাহাঙ্গীর হোসেন, রাকিবুল, ইমন, বদিউজ্জামান বদু, জাহিদ হোসেন। এ ওয়ার্ডটি সিদ্ধিরগঞ্জ বাজার, সিদ্ধিরগঞ্জ মাজার, আইয়ুবনগর, সাইলো ও সিদ্ধিরগঞ্জ পাওয়ার হাউজ এলাকা নিয়ে গঠিত।

৬ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর থানা যুবলীগের সভাপতি মতিউর রহমান মতির সঙ্গে লড়ছেন সিরাজুল ইসলাম মণ্ডল, এসএম আসলাম। এ ওয়ার্ডটি আদমজী বিহারী কলোনী, সোনামিয়া বাজার, শিমুলপাড়া রেললাইন, চর শিমুলপাড়া, গোদনাইল বাগপাড়া, মুনলাইট, এসও রোড ও নতুন আইলপাড়া এলাকা নিয়ে গঠিত।

৭ নম্বর ওয়ার্ডে সাবেক বিএনপি নেতা গোলাম মোহাম্মদ খান গুলু, রুমা আক্তার (বর্তমান কাউন্সিলর মৃত আলী হোসেন আলার স্ত্রী), টিপু গাজী, মো. ফজলুল হক জুয়েল, মিজানুর রহমান খান রিপন, তানজিম কবির সজু, সাব্বির হোসেন, সালাউদ্দিন সানী, আলাউদ্দিন মেম্বার, সারোয়ার ভূইয়া, সবুজ শেখ, মহসিন শেখ, হারুন অর রশীদ (এক সময় চা বিক্রেতা ছিলেন), আয়নাল সরকার (হাতপাখা)। এ ওয়ার্ডটি আদমজী কদমতলী উত্তরপাড়া, দক্ষিণপাড়া, পশ্চিমপাড়া, গ্যাসলাইন, পাগলাবাড়ি উত্তর ও নাভানা ভুঁইয়া সিটি এলাকা নিয়ে গঠিত।

৮ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মহানগর যুবলীগ নেতা রুহুল আমিন মোল্লার বিপরীতে নির্বাচনে মাঠে নেমে পড়েছেন মহসিন ভূইয়া, সালাউদ্দিন আহমেদ, মহানগর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাগর প্রধান, অ্যাডভোকেট মেহবুব হাসান মুন্না, জুয়েল রানা। এ ওয়ার্ডটি গোদনাইল ধনকুন্ডা, এনায়েতনগর, তাঁতখানা, ভুঁইয়াপাড়া, রসূলবাগ, পাঠানতলী পশ্চিমসহ কয়েকটি এলাকা নিয়ে গঠিত।

৯ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর বিএনপি থেকে আওয়ামী লীগে যোগ দেওয়া নেতা ইসরাফিল প্রধানের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মাঠে নেমেছেন মাসুদুর রহমান মাসুদ, ফারুক মাস্টার। এ ওয়ার্ডটি জালকুড়ি, তালতলা, উত্তরপাড়া, পশ্চিমপাড়া, শিকদার বাড়ি পুল ও মধুগড় এলাকা নিয়ে গঠিত।

১০ নম্বর ওয়ার্ডে বর্তমান কাউন্সিলর মহানগর আওয়ামী লীগের পদধারী নেতা ইফতেখার আলম খোকনের বিপরীতে এখনও কেউ নির্বাচন করার ঘোষণা দেয়নি। এ ওয়ার্ডটি গোদনাইল, আরামবাগ, চিত্তরঞ্জন, লক্ষ্মীনারায়ণ, কেসিআই পানির কল, পাঠানতলী পূর্বসহ কয়েকটি এলাকা নিয়ে গঠিত।

তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ১৫ ডিসেম্বর। ২০ ডিসেম্বর বাছাই, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৭ ডিসেম্বর। ভোটগ্রহণ ১৬ জানুয়ারি।  

২০১১ সালে সিটি করপোরেশন হিসেবে যাত্রা শুরুর পর এটি হচ্ছে তৃতীয় নির্বাচন। প্রথমবার ৯টি ওয়ার্ডে ইভিএমে, বাকিগুলোতে ব্যালট পেপারে ভোট হয়।  

২০১৬ সালে সব কেন্দ্রে ব্যালট পেপারে এবং এবার ভোট হবে ইভিএমে। প্রথমবার নির্দলীয় প্রতীকে ভোট হয় এ সিটিতে। দলীয় প্রতীকে স্থানীয় নির্বাচন চালুর পর এটি দ্বিতীয় নির্বাচন হতে যাচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৪, ২০২১
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa