ঢাকা, শনিবার, ৮ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারি ২০২২, ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

নির্বাচন ও ইসি

ব্যালট দেরিতে আসায় তিন ঘণ্টা পর শুরু হলো ভোট গ্রহণ

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২১
ব্যালট দেরিতে আসায় তিন ঘণ্টা পর শুরু হলো ভোট গ্রহণ

হবিগঞ্জ: হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের একটি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে বেলা ১১টায়। ব্যালট পেপার না আসায় কেন্দ্রটিতে ভোট গ্রহণে তিন ঘণ্টা বিলম্ব হয় বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

রোববার (২৮ নভেম্বর) তৃতীয় ধাপের ইউপি নির্বাচনে নবীগঞ্জের কুর্শি ইউনিয়নের গহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। এতে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন হলে স্থানীয়রা উত্তেজিত হয়ে পড়েন।  

জানা যায়, সকাল ৮টা থেকেই সেখানে ভোটারদের লাইনে দাঁড় করানো হয়। দুইজন ভোটার কেন্দ্রে প্রবেশের পর দায়িত্বপ্রাপ্তরা দেখতে পান এখানে চেয়ারম্যান পদের ব্যালট নেই। এজন্য ভোটগ্রহণ বন্ধ রাখা হলে ভোটারদের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় প্রিজাইডিং কর্মকর্তা নির্মলেন্দু জোয়ারদার ও পুলিশ সদস্যরা দ্রুত ভোট গ্রহণ শুরুর আশ্বাস দিয়ে তাদের শান্ত করেন। কিন্তু তিন ঘণ্টা পর বেলা ১১টায় কেন্দ্রে ব্যালট পেপার পৌঁছে ও তখন থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

হবিগঞ্জ জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. সাদেকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, কেন্দ্রটিতে চেয়ারম্যান পদের ব্যালট পেপার সংকট থাকায় ভোট গ্রহণে বিলম্ব হয়েছে। পরে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে সেখানে ব্যালট পেপার পাঠানো হয়। এরপর সকাল ১১টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়।

হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক (ডিসি) ইশরাত জাহান বাংলানিউজকে বলেন, গহরপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যেহেতু তিন ঘণ্টা পর ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে, সেক্ষেত্রে পরবর্তীতে যতক্ষণ পর্যন্ত কেন্দ্রে ভোটার থাকবেন, ততক্ষণ ভোটগ্রহণ করা হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২১ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৮, ২০২১
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa