ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

নির্বাচন ও ইসি

পৌর নির্বাচন: ফেনীতে নৌকা ছাড়া বাকিদের জামানত টিকবে না

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩১, ২০২১
পৌর নির্বাচন: ফেনীতে নৌকা ছাড়া বাকিদের জামানত টিকবে না

ফেনী: ফেনী পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী নজরুল ইসলাম স্বপন মিয়াজী ছাড়া বাকি চার প্রার্থীর কারোই জামানত টিকবে না।  

জামানত বাজেয়াপ্ত হতে যাওয়া মেয়র প্রার্থীরা হচ্ছেন, ধানের শীষ প্রতীকের বিএনপির মেয়র প্রার্থী আলাল উদ্দিন আলাল, জাতীয় পার্টির ইয়ামিন হাসান ইমন (লাঙ্গল), জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের (এনডিএম) তারিকুল ইসলাম (সিংহ) এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. গোলামুর রহমান আজম (হাত পাখা)।

 

নির্বাচন বিধিমালা অনুযায়ী, মোট প্রদত্ত ভোটের আট ভাগের এক অংশের নিচে পেলে যেকোনো প্রার্থীর জামানত বাজেয়াপ্ত হয়।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তা নাছির উদ্দিন পাটওয়ারী জানান, ফেনী পৌর এলাকায় মোট ভোটার সংখ্যা ৯১ হাজার ৬৬২ জন। মোট ভোট দেন ৭২ হাজার ৬শ’ ৫৩ জন। নির্বাচনে ভোট পড়েছে ৭৯.২৬ শতাংশ। এরমধ্যে ৬শ’ ১৪টি ভোট বাতিল করা হয়। বৈধ ভোট মধ্যে ৭২ হাজার ৩৯টি। অর্থাৎ জামানত ফিরে পেতে হলে প্রার্থীকে ৫ হাজার ৭৬৩ ভোট পেতে হবে।

মোট প্রদত্ত ভোটের মধ্যে নৌকা প্রতীকে স্বপন মিয়াজী একাই পেয়েছেন ৬৯ হাজার ৩০৯ ভোট, ধানের শীষ প্রতীকে আলাল উদ্দিন আলাল পেয়েছেন ১ হাজার ৯৪৯ ভোট, ইয়ামিন হাসান ইমন লাঙ্গল প্রতীকে পেয়েছেন ২১০ ভোট, ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী গোলামুর রহমান আজম হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ২৫১ ভোট এবং জাতীয়তাবাদী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের প্রার্থী তারিকুল ইসলাম সিংহ প্রতীকে পেয়েছেন ৩২০ ভোট। এদের মধ্যে স্বপন মিয়াজী ছাড়া আর বাকী চার প্রার্থীই জামানত হারাচ্ছেন।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা জানান, ভোটের ফলাফলের গেজেট হলেই কম ভোট পাওয়া প্রার্থীদের জামানত বাজেয়াপ্ত করে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩১, ২০২১
এসএইচডি/এমআরএ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa