ঢাকা, সোমবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২০ মে ২০২৪, ১১ জিলকদ ১৪৪৫

নির্বাচন ও ইসি

চাঁদপুর পৌর নির্বাচন ১০ অক্টোবর, চলছে ব্যাপক প্রচারণা 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬১৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩, ২০২০
চাঁদপুর পৌর নির্বাচন ১০ অক্টোবর, চলছে ব্যাপক প্রচারণা 

চাঁদপুর: আগামী ১০ অক্টোবর চাঁদপুর পৌরসভার সাধারণ নির্বাচন। বিএনপি প্রার্থী সফিকুর রহমান ভুঁইয়ার মৃত্যুর পর ২৯ মার্চের নির্বাচন স্থগিত হয়।

স্থগিত হওয়া নির্বাচন পুনরায় সময়সূচি ঘোষণা করা হলে শুধুমাত্র মেয়র পদে বিএনপির প্রার্থী নতুন করে মনোনয়ন পান। নির্বাচনের আর মাত্র এক সপ্তাহ বাকি। ইতোমধ্যে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের প্রচারণা তুঙ্গে।  

নির্বাচন সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হওয়ার লক্ষ্যে শুক্রবার (২ অক্টোবর) চাঁদপুর সদর উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে জেলার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী, র্যাব, বিজিবি নিয়ে প্রার্থীদের মতবিনিময় অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে প্রার্থীদের কাছ থেকে দায়িত্বশীল আচরণ আশা করেছেন জেলা প্রশাসক।

চাঁদপুর পৌরসভা ১৫টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত। প্রত্যেক ওয়ার্ডেই একাধিক কাউন্সিলর প্রার্থী। সব মিলিয়ে সাধারণ কাউন্সিলর প্রার্থী রয়েছে ৫০ জন এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর মহিলা ১৪ জন। কাউন্সিলর প্রার্থীদের মধ্যে পুরনো ছাড়াও নতুন অনেক প্রার্থী রয়েছেন। যারা নতুন করে প্রার্থী তারা উন্নয়ন করবেন বলে অঙ্গীকার করছেন ভোটারদের কাছে। অপরদিকে, পুরনো কাউন্সিলররা তাদের বাকি কাজ দ্রুত সম্পন্ন করবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন।

আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী জিল্লুর রহমান। তিনি সকাল থেকে রাত পর্যন্ত প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। জেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে চলছে তার প্রচারণা। তিনি আধুনিক চাঁদপুর পৌরসভা গড়ার অঙ্গিকার নিয়ে মাঠে নেমেছেন।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী আক্তার হোসেন মাঝি। তিনিও বিএনপি ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের নিয়ে সকাল থেকে রাত পর্যন্ত নির্বাচনী মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। এই মেয়র প্রার্থীর বক্তব্য হচ্ছে তাদের দলের নেত্রীকে স্থায়ীভাবে মুক্ত করাই হচ্ছে নির্বাচনে অংশ নেওয়া।  

বিএনপি ও আওয়ামী লীগের দুই মেয়র প্রার্থীই সাবেক ছাত্র নেতা। জিল্লুর রহমান চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এবং আক্তার হোসেন মাঝি চাঁদপুর সরকারি কলেজের নির্বাচিত জিএস। গ্রহণযোগ্যতায় কারো চাইতে কেউ কম নয়। তবে তরুণদের কাছে অল্প সময়ের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন নৌকার প্রার্থী জিল্লুর রহমান। তরুণদের মুখে মুখে শুধু জিল্লুর রহমান। চাঁদপুর পৌরসভার দীর্ঘবছরের ক্ষমতার পালাবদলের পক্ষে ভোটাররা।  

অপরদিকে, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত হাতপাখা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী রাজনীতিতে নতুন মুখ মামুনুর রশিদ বেলাল। তিনি চরমোনাই পীরের অঙ্গীকার নিয়ে ভোটারদের কাছে গিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছেন।

উল্লেখ্য, চাঁদপুর পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন আগামী ১০ অক্টোবর। নির্বাচনে ১৫টি ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্র ৫২টি। সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ড সংখ্যা পাঁচটি। ভোট কক্ষ সর্বমোট ৩০৫টি। অস্থায়ী ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা ২৩টি। মোট ভোটার সংখ্যা (ক) পুরুষ ৫৮ হাজার ১৪৪ জন। (খ) মহিলা ভোটার ৫৮ হাজার ৩৪৩জন। সর্বমোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ১৬ হাজার ৪৮৭ জন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০৩, ২০২০
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।