ঢাকা, শুক্রবার, ২২ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

শিক্ষা

জ্বালানি নিয়ে সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার: শিক্ষামন্ত্রী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫১৪ ঘণ্টা, আগস্ট ১২, ২০২২
জ্বালানি নিয়ে সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার: শিক্ষামন্ত্রী

ঢাকা: শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, সঠিক সিদ্ধান্ত সব সময় জনপ্রিয় হয় না। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি নিয়ে সময়মতো সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

শুক্রবার (১২ অগাস্ট) বাংলাদেশ পলিটেকনিক শিক্ষক সমিতির ১৭তম জাতীয় সম্মেলন ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে ঢাকা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে আয়োজিত ‘শোক হোক শক্তি, কারিগরি শিক্ষাই মুক্তি’ শীর্ষক এক সেমিনারে মন্ত্রী একথা বলেন।

তিনি বলেন, আজকে যদি আমরা কৃচ্ছ্র সাধন না করি, তাহলে সামনে বিপদে পড়বো। সেটি চিন্তা করেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এই জ্বালানির কৃচ্ছ্র সাধনে মূল্যবৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

ধরেন, আমাদের হাতে যা টাকা আছে, তার সব টাকা কিন্তু আমরা এখনই খরচ করি না। ভবিষ্যতের জন্যও সঞ্চয় করি আমরা। একটি রাষ্ট্রও তাই। এখনকার সঞ্চয় সামনে আমাদের বিপদে কাজে আসবে।

দীপু মনি বলেন, জ্বালানির দাম বাড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। ১ বছর পর নির্বাচন, সেটি না ভেবে সুশীলদের কথা চিন্তা না করে সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত তিনি নিয়েছেন।  

মন্ত্রী বলেন, আমরা সৌভাগ্যবান শেখ হাসিনার মতো রাষ্ট্রনায়ক পেয়েছি। যিনি অত্যন্ত দূরদর্শী, সৎ এবং সাহসী।

সঠিক সিদ্ধান্ত সব সময় জনপ্রিয় হয় না। বিদ্যুৎ ও জ্বালানি নিয়ে সময়মতো সাহসী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন উল্লেখ করে আজকে যদি কৃচ্ছ্র সাধনে না যাই, তাহলে সামনে বিপদে পড়বো।

এসএসসি পরীক্ষা যথা সময়ে হবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, একেবারে অনিবার্য কোনো কারণ না থাকলে অবশ্যই যথাসময়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।  কারিগরি শিক্ষায় বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু সব সময় কারিগরি শিক্ষাকে গুরুত্ব দিয়েছেন।  

ছাত্রলীগের সম্মেলনে তিনি  বলেছিলেন, বিএ-এমএ ডিগ্রি নিয়ে লাভ নেই, দরকার কারিগরি শিক্ষা। কাজেই যে জাগরণের কথা আমরা বলছি, আমাদের শিক্ষকদেরই সে দায়িত্ব নিতে হবে।  

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মো. ওমর ফারুক বলেন, সাধারণ মানুষের কণ্ঠস্বর হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু।  

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের কোর্স এফ্রিডিটেশন বিশেষজ্ঞ ড. শাহ আলম মজুমদার। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) ড. মো. ওমর ফারুক।

বাংলাদেশ পলিটেকনিক শিক্ষক সমিতির (বাপশিস) (কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদ) সভাপতি মো. আমান উল্লাহ খান ইউছুফজীর সভাপতিত্বে স্বাগত বক্তব্য দেন বাপশিস’র সাধারণ সম্পাদক জি. এম. আকতার হোসেন, ঢাকা পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট’র অধ্যক্ষ প্রকৌশলী কাজী জাকির হোসেন। উপস্থিত ছিলেন বাপশিস’র বিভিন্ন সদস্য ও শিক্ষকরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৩ ঘণ্টা, আগস্ট  ১২, ২০২২ 
এমকে/এসআইএস 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa