ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

শিক্ষা

বই উৎসবের অপেক্ষায় সাড়ে ৪ কোটি শিক্ষার্থী

ইসমাইল হোসেন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭২০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০১৬
বই উৎসবের অপেক্ষায় সাড়ে ৪ কোটি শিক্ষার্থী ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম / ফাইল ফটো

ঢাকা: উৎসবের অপেক্ষায় গোটা  বাংলাদেশ, নতুন বছরের প্রথম দিন উৎসবের মাধ্যমে সারা  দেশে প্রথম থেকে নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের হাতে যাবে সাড়ে চার কোটি বিনামূল্যের পাঠ্যবই। ছাপা শেষে বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক বিতরণের জন্য সারাদেশে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে।


 
শুক্রবার (১ জানুয়ারি) ছুটির দিন হলেও সারা দেশের স্কুল, মাদ্রাসা, কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা রেখে বই বিতরণ করবে সরকার।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ৪ কোটি ৪৪ লাখ ১৬ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৯১টি শিরোনামে ৩৩ কোটি ৩৭ লাখ ৬২ হাজার ৭৬০টি বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এবার একই দিনে দুই স্থানে কেন্দ্রীয়ভাবে এই উৎসব পালন করছে।   দুই  মন্ত্রণালয়ই ঘটা করে উৎসব পালনের উদ্যোগ নিয়েছে।
 
সকাল ৯টায় গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাইস্কুল মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক শিক্ষার্থীদের মাঝে বিতরণের মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ‘পাঠ্যপুস্তক উৎসব দিবস’র উদ্বোধন করবেন।
 
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সকাল ১০টায় ‘পাঠ্যপুস্তক বিতরণ উৎসব’ পালন করবে রাজধানীর মিরপুর নম্বরে ন্যাশনাল বাংলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে।
 
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান প্রাথমিক ও ইবতেদায়ীর কোমলমতি শিক্ষার্থীদের হাতে পাঠ্যপুস্তক তুলে দিয়ে এ উৎসবের উদ্বোধন করবেন।
 
এতে উপস্থিত থাকবেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক  প্রতিমন্ত্রী মোতাহার হোসেন এবং সদস্য ইলিয়াস উদ্দিন মোল্লাহ্, আ খ ম জাহাঙ্গীর হোসেন, নজরুল ইসলাম বাবু, আলী আজম, বেগম উম্মে রাজিয়া কাজল, আসলামুল হক ও কামাল আহম্মেদ মজুমদার।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সুবোধ চন্দ্র ঢালী বাংলানিউজকে জানান, প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ৪ কোটি ৪৪ লাখ ১৬ হাজার ৭২৮ শিক্ষার্থীর মধ্যে ২৯১টি শিরোনামে ৩৩ কোটি ৩৭ লাখ ৬২ হাজার ৭৭২টি বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে।
 
এরমধ্যে প্রাক-প্রাথমিকে ৩৩ লাখ ৭৩ হাজার ৩৭৩ জন শিক্ষার্থীর মধ্যে ৬৫ লাখ  ৭৭ হাজার ১৫৪টি, প্রাথমিকে  ২  কোটি  ৪৫ লাখ ৭১ হাজার৭৩১ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ১০ কোটি ৮৭ লাখ ১৯ হাজার ৯৯৭টি বই বিতরণ করা হবে।
 
ইবতেদায়িতে ২৭ লাখ ৩ হাজার ৯৮৪ জন শিক্ষার্থীর হাতে তুলে দেওয়া হবে ১ কোটি ৯২ লাখ ৫৫ হাজার ৬১৫টি বই। মাধ্যমিকে  ১ কোটি ১২ লাখ ৩৬ হাজার ১৮ শিক্ষার্থীর মাঝে ১৬ কোটি ৩০ লাখ ৪ হাজার ৩৭৩টি বই দেওয়া হবে।
 
দাখিল ও ভোকেশনালে ২৩ লাখ ৪৪ হাজার ৪৬৯ শিক্ষার্থীর হাতে ৩ কোটি ৩৯ লাখ ৩৩ হাজার ৭৯৭টি বই বিতরণ করার কথা।
 
কারিগরি ও এসএসসি ভোকেশনালে ১ লাখ ৮৭ হাজার ১৫৩ শিক্ষার্থীর হাতে যাবে ২২ লাখ ৭১ হাজার ৮৩৬টি বই।
 
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, সারা দেশে মোট ২ কোটি ২৩ লাখ ২২ হাজার ৪২৮ জন শিক্ষার্থীর মাঝে ১০ কোটি ৮৭ লাখ ১৯ হাজার ৯৯৭টি বই বিতরণ করবে তারা। এছাড়া ৩২ লাখ প্রাক প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের হাতে ৩ কোটি ২৮ লাখ ৮ হাজার ৫৩টি বই ও অনুশীলন খাতা বিতরণ করা হবে।
 
পাঠ্যপুস্তক উৎসব দিবস সফল করার জন্য জনপ্রতিনিধি, শিক্ষার্থী, শিক্ষক, অভিভাবক, কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।
 
২০১০ সাল থেকে প্রথম-নবম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যের বই বিতরণ করে এলেও পরের বছর থেকে পাঠ্যপুস্তক উৎসব করে আসছে সরকার।
 
বাংলাদেশ সময়: ০৭১০ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০১৬
এমআইএইচ/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

শিক্ষা এর সর্বশেষ