ঢাকা, শনিবার, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

শিক্ষা

একই দিনে বই উৎসব

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৭২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৫
একই দিনে বই উৎসব ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম (ফাইল ছবি)

ঢাকা: একদিন এগিয়ে নতুন বছরের প্রথম দিন শুক্রবার (১ জানুয়ারি) সারা দেশে পাঠ্যপুস্তক উৎসবের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।
 
ওই দিন সকাল ৯টায় কেন্দ্রীয়ভাবে রাজধানীর গভর্মেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুলে বই বিতরণ করা হবে।



বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) বিকেলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক সভায় শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের সভাপতিত্বে এ সিদ্ধান্ত হয়।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সুবোধ চন্দ্র ঢালী বাংলানিউজকে বলেন, ওই দিন সারা দেশের শিক্ষার্থীদের বই বিতরণের জন্য স্কুল খোলা থাকবে, তবে ক্লাস হবে না।

বছরের প্রথম দিন ছুটির দিন হওয়ায় এর আগে ২ জানুয়ারি শনিবার পাঠ্যপুস্তক উৎসবের কথা ছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের।
 
১ জানুয়ারি সকাল ১০টায় রাজধানীর মিরপুরে ন্যাশনাল বাংলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাথমিকের পাঠ্যপুস্তক উৎসব হবে বলে জানিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।
 
গত ১৩ ডিসেম্বর বিনামূল্যে বিতরণের জন্য পাঠ্যপুস্তক ছাপার অগ্রগতি দেখতে রাজধানীর মাতুয়াইলে বিভিন্ন ছাপাখানায় আকস্মিক পরিদর্শনের পর শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেন, ১ জানুয়ারি সাপ্তাহিক ছুটি হওয়ায় ২ জানুয়ারি সারাদেশে পাঠ্যপুস্তক দিবস পালন করা হবে।
 
২১ ডিসেম্বর প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ১ জানুয়ারি সকাল ১০টায় ন্যাশনাল বাংলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রাথমিকের পাঠ্যপুস্তক উৎসব পালনের কথা জানায়।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, গভর্নমেন্ট ল্যাবরেটরি হাই স্কুল মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে পাঠ্যপুস্তক দিবস উদ্বোধন করবেন শিক্ষামন্ত্রী।

জাতীয় পাঠ্যপুস্তক দিবসে সারাদেশে প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে।
 
এ উপলক্ষে দেশের সকল স্কুল, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান শুক্রবার খোলা থাকবে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
 
শিক্ষাসচিব মো. সোহরাব হোসাইন, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ফাহিমা খাতুন, জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্য পুস্তক বোর্ডের চেয়ারম্যান নারায়ণ চন্দ্র পাল, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা সভায় উপস্থিত ছিলেন।
 
২০১০ সাল থেকে ১ জানুয়ারি পাঠ্যপুস্তক উৎসব উদযাপন করে আসছে সরকার।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয় জানায়, এবার প্রথম থেকে নবম শ্রেণি পর্যন্ত ৩৪ কোটির ওপর বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণ করা হবে। গত বছর এ সংখ্যা ছিল ৩৩ কোটি।
 
গত বছরও  একই দিনে ১ জানুয়ারি শিক্ষা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় মতিঝিল সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে যৌথভাবে পাঠ্যপুস্তক উৎসব পালন করে।
 
তবে ওই অনুষ্ঠানে গণশিক্ষা মন্ত্রীকে ‘সচিব’ সম্মোধন, ছাড়াও ভিন্ন ভিন্ন বক্তা মঞ্চের ভিন্ন অতিথিকে ‘সভাপতি’ সম্বোধন করেন। এ নিয়ে গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়।  
 
প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, যেকোন দিন অনুষ্ঠান করলে শিক্ষামন্ত্রী মিডিয়ায় কাভারেজ পাবেন, আমাদের উৎসবের দিন পালন করায় আবারও তা নিয়ে শঙ্কা তৈরি হবে।
 
গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভায় কেউ উপস্থিত ছিলেন না।
 
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন এনসিটিবি ২০১৬ শিক্ষাবর্ষে ৪ কোটি ৪৪ লাখ ১৬ হাজার ৭২৮ জন শিক্ষার্থীর জন্য ৩৩ কোটি ৩৯ লাখ ৬১ হাজার ১২৪টি বই ছাপানোর কাজ করছে।
 
প্রাথমিক স্তরের ২ কোটি ২৩ লাথ ২২ হাজার ৪২৮ জন শিক্ষার্থীর জন্য ১০ কোটি ৮৭ লাখ ১৯ হাজার ৯৯৭টি বই বিতরণ করা হবে।
 
এছাড়া ৩২ লাখ প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার্থীদের হাতে তিন কোটি ২৮ লাখ ৮ হাজার ৫৩টি বই ও অনুশীলন খাতা বিতরণ করার কথা।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৭২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৫/আপডেট: ১৮৪৮ ঘণ্টা
এমআইএইচ/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa