ঢাকা, রবিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ শাবান ১৪৪৫

শিক্ষা

শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যসেবা দিতে ঢাবি-ডুয়া চুক্তি স্বাক্ষর

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৪১ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০২৩
শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যসেবা দিতে ঢাবি-ডুয়া চুক্তি স্বাক্ষর

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যসেবা প্রদান এবং মানসিক সুস্থতা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শদান দফতর এবং ঢাকা ইউনিভার্সিটি অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের (ডুয়া) মধ্যে এক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।  

মঙ্গলবার (২১মার্চ) উপাচার্য কার্যালয় সংলগ্ন লাউঞ্জে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষে কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষে মহাসচিব মোল্লা মো. আবু কাওসার সমঝোতা স্মারকে স্বাক্ষর করেন। অনুষ্ঠানে ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শদান দফতরের পরিচালক অধ্যাপক ড. মেহজাবীন হক, অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আনোয়ার- উল আলম চৌধুরী, সাবেক সভাপতি এ.কে. আজাদসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং অ্যাসোসিয়েশনের নেতারা উপস্থিত ছিলেন। এই সমঝোতা স্মারকের আওতায় ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শদান দফতর এবং অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন যৌথভাবে শিক্ষার্থীদের জন্য মানসিক স্বাস্থ্য বিষয়ক সচেতনতামূলক কার্যক্রম ও প্রশিক্ষণ কর্মসূচি পরিচালনা করবে।

এছাড়া, শিক্ষার্থীদের সরাসরি ও টেলি কাউন্সেলিং সেবা দেওয়া হবে। অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশন এক্ষেত্রে ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শদান দফতরকে আর্থিক ও কারিগরি সহযোগিতা দেবে।  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান এই সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, শিক্ষার্থীদের মানসিক সুস্থতা নিশ্চিত করার ক্ষেত্রে এই উদ্যোগ কার্যকর ভূমিকা পালন করবে। এর মাধ্যমে ছাত্র নির্দেশনা ও পরামর্শদান দফতরের সক্ষমতা ও কার্যপরিধি আরও বাড়বে বলেও তিনি আশা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৪০ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০২৩
এসকেবি/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।