ঢাকা, রবিবার, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৪ শাবান ১৪৪৫

শিক্ষা

বর্তমান-ভবিষ্যৎ প্রজন্মের গবেষকদের জন্য বুয়েটে অত্যাধুনিক গবেষণাগার স্থাপন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১০ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০২৩
বর্তমান-ভবিষ্যৎ প্রজন্মের গবেষকদের জন্য বুয়েটে অত্যাধুনিক গবেষণাগার স্থাপন

ঢাকা: অপটিকস ও অপটোইলেক্ট্রনিক্সে শীর্ষস্থানীয় আন্তর্জাতিক টেকনোলজি কোম্পানি এবং বাংলাদেশে লাইট, ইলেকট্রন ও এক্স-রে মাইক্রোস্কোপ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান জেইস বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বুয়েট) একটি অত্যাধুনিক গবেষণাগার 'ল্যাবস এট লোকেশন' উদ্বোধন করা হয়েছে।  

মঙ্গলবার (২১ মার্চ) বিকেলে রাজধানীর বুয়েটের বায়ো-মেডিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (বিএমই) ডিপার্টমেন্টে অত্যাধুনিক এ ল্যাব উদ্বোধন করেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিব ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জানানো হয়, জেইস 'ল্যাবস এট লোকেশন' জেইস-এর গ্রাহকদের একটি কমিউনিটি, যা রিসার্চ মাইক্রোস্কোপি সল্যুশনের ক্ষেত্রে বিশেষায়িত জ্ঞান প্রদান করে। বুয়েট-এর বিএমই ডিপার্টমেন্টের ল্যাবে নতুন প্রযুক্তির সফল ব্যবহারের ক্ষেত্রে এটি জ্ঞান অর্জনের একটি নির্ভরশীল উৎস হয়ে উঠবে।

এ উদ্যোগটির উদ্দেশ্য হলো আধুনিক মাইক্রোস্কোপি ও স্বাস্থ্যসেবার সুবিধার মাধ্যমে গবেষণা ও একাডেমিক কার্যক্রমের সম্প্রসারণ করা। এর ফলে নিয়মিত প্রশিক্ষণের মধ্যে দিয়ে বাংলাদেশের বিজ্ঞানভিত্তিক গোষ্ঠীগুলোর সামগ্রিক উন্নয়ন নিশ্চিত হবে। এর পাশাপাশি সেন্টারটি বাংলাদেশি শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলির নানা উপাত্ত গবেষণায় সহায়তা করবে।  

বুয়েটে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেইস গ্রুপের সার্ক অঞ্চলের রিজিওনাল হেড বিকাশ সাক্সেনা বলেন, বাংলাদেশের অন্যতম সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বুয়েট-এ আমরা 'জেইস ল্যাবস এট লোকেশন' উদ্বোধন করতে পেরে আনন্দিত। বৈজ্ঞানিক ক্ষেত্রে উদ্ভাবনে আমরা সবসময়ই দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের বিজ্ঞানপ্রেমীদের উন্নত মাইক্রোস্কোপ ও স্বাস্থ্যসেবার সরঞ্জামের মাধ্যমে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিগত সুবিধা দেওয়ার ওপর আমরা সবসময় বিশেষ গুরুত্ব দিয়ে থাকি। অত্যাধুনিক ল্যাবস এট লোকেশন এ বিষয়টিরই সাক্ষ্য বহন করে। প্রতিটি যন্ত্র সতর্কতার সঙ্গে এ আশা ও বিশ্বাস নিয়ে তৈরি করা হয়েছে যে, এটি গবেষকদের জীবন ও জড় জগতকে দেখার ভঙ্গিতে পরিবর্তন আনবে।

তিনি বলেন, এ ল্যাব স্থাপনে ধারাবাহিক সহযোগিতার জন্য আমরা ব্রুকার ন্যানো জিএমবিএইচ-এর ইউরোপ, ভারত ও মধ্যপ্রাচ্যের রিজিওনাল সেলস ম্যানেজার জন গিলবার্টকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা জানাতে চাই। রিসার্চ মাইক্রোস্কোপিতে মাইক্রো অ্যানালাইসিস টেকনিক সরবরাহের ক্ষেত্রে উভয় সংস্থার দৃষ্টিভঙ্গিতে সামঞ্জস্য রয়েছে।

তিনি আরও বলেন, জেইআইএসএস গ্রুপের জন্য বাংলাদেশ একটি দ্রুত বর্ধনশীল মার্কেট। প্রযুক্তির বিভিন্ন  ক্ষেত্রে গ্রাহক অর্জনে আমরা এখানে শক্ত অবস্থান তৈরি করতে পেরেছি। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, বাংলাদেশে অপার সম্ভাবনা ও প্রতিভা রয়েছে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিক্ষেত্রে উন্নয়নের পরবর্তী স্তরে পৌঁছানোর জন্য আমাদের শুধু আধুনিক অবকাঠামো নির্মাণ করতে হবে।

উল্লেখ্য যে, উন্নত প্রযুক্তিভিত্তিক শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলোয় উৎপাদন ও সংযোজনের পাশাপাশি জেইস-এর সিস্টেমগুলি বিশ্বব্যাপী কাঁচামাল বিশ্লেষণ এবং প্রক্রিয়াকরণের জন্য ব্যবহৃত হয়। জেইস-এর উৎপাদিত পণ্যের মধ্যে রয়েছে পরিমাপক প্রযুক্তি, মাইক্রোস্কোপ, মেডিকেল প্রযুক্তি, চশমার লেন্স, ক্যামেরা, ফটোগ্রাফি, সিনে লেন্স, বাইনোকুলার ও স্পটিং স্কোপস।  

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাজমুল হক খান ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম।

বাংলাদেশ সময়: ০০০৫ ঘণ্টা, মার্চ ২২, ২০২৩
ইএসএস/এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad