ঢাকা, সোমবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ১০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

‘ব্যাংকের ঋণ যেন সঠিক তথ্যের ভিত্তিতে দেওয়া হয়’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
‘ব্যাংকের ঋণ যেন সঠিক তথ্যের ভিত্তিতে দেওয়া হয়’

ঢাকা: দেশের সব ব্যাংক যেন সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে ঋণ দেয় ও আমানতকারীদের সঞ্চয় নিরাপদ থাকে- এ প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন ব্রাক ব্যাংকের চেয়ারম্যান ড. আহসান এইচ মনসুর।  

তিনি বলেছেন, আমরা চাই ব্যাংকের ঋণটা যেন সঠিক তথ্যের ভিত্তিতে দেওয়া হয়।

দেশের সব ব্যাংক যাতে সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে ঋণ দেয় যাতে করে আমানতকারিদের সঞ্চয় নিরাপদ থাকে।  

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) বিআইবিএম-এর অডিটোরিয়ামে আয়োজিত ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন সিস্টেম (ডিভিএস) শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. আহসান এইচ মনসুর এ কথা বলেন।  

অনুষ্ঠানটি বিআইবিএম এবং দ্যা ইনস্টিটিউট অব চাটার্ড অ্যাকাউন্টেটস (আইসিএবি) যৌথভাবে আয়োজন করে।

আহসান এইচ মনসুর বলেন, পর্যবেক্ষণ অনুযায়ী ‘ভুল তথ্য’ দেওয়ার জন্যই দেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের আস্থাহীনতা তৈরি হয়েছে। এই যে স্টক মার্কেটে আস্থাহীনতা সেটার কারণ কিন্তু তথ্য কেন্দ্রিক। যখন কোনো কোম্পানি আইপিওর মাধ্যমে নিবন্ধিত হয়, তখন হয়তো ঠিকঠাক থাকে। বছর শেষে ডিভিডেন্ড দেওয়ার সময় আর খুঁজে পাওয়া যায় না। আমরা যদি একাউন্টিং সঠিক ভাবে না করি তবে ফাইনান্সিয়াল সেক্টরের অবস্থা আরও খারাপ হবে। এখন যে খুব ভালো আছে সেটাও নয়।

দেশের ব্যাংকগুলো দুর্বল ভিত্তির উপর পরিচালিত হচ্ছে বলে দাবি করেছেন পলিসি রিসার্চ ইনিস্টিটিউটের নির্বাহী পরিচালক আহসান এইচ মনসুর বলেন, অর্থনীতির ভারসাম্যের জন্য রেগুলেটর (বাংলাদেশ ব্যাংক) ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ‘মিউচুয়াল রেসপেক্ট’ থাকা দরকার। কিন্তু দুর্বল ভিত্তির উপর প্রতিষ্ঠিত ব্যাংকগুলো রেগুলেটরের কোনো সিদ্ধান্তকে আইনগতভাবে চ্যালেঞ্জ করতে পারছে না।

তিনি বলেন, ব্যাংকগুলো এই দুর্বল ভিত্তি, যেটা একাউন্টিং বিষয়ক, সেখানে উন্নতি করতে পারলে তবেই তাদের মধ্যে সৎসাহস আসবে। এই যে সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক কয়েকটি ব্যাংকের স্টাফদের সরিয়ে দিলো, কেউ কোনো কথা বললো না। কারণ সৎ সাহস নেই।

বক্তারা বলেন, ডিভিএস একটি সিস্টেমেটিক সিস্টেম। এই সিস্টেমে সবার আসতে হবে। ডিবিএস একটা রক্ষা কবজ। আমাদের টার্গেট অনেক তাই এক্ষেত্রে ডিভিএস অগ্রণী ভূমিকা রাখবে। এর মাধ্যমে ইন্ডাস্ট্রি সমৃদ্ধ হবে বলেও তারা মনে করেন।

বিআইবিএম-এর মহাপরিচালক ড. মো. আখতারুজ্জামানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিআইবিএম-এর সহযোগী অধ্যাপক এবং পরিচালক (প্রশিক্ষণ এবং সার্টিফিকেশন প্রোগ্রাম) মোহাম্মদ সোহেল মোস্তফা সিএফএ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন বিআইবিএম-এর অধ্যাপক (সিলেকশন গ্রেড) ড. প্রশান্ত কুমার ব্যানার্জ্জী।
 
অনুষ্ঠানে যৌথভাবে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মোহাম্মদ ফোরকান উদ্দিন এফসিএ এবং আইসিএবি-এর উপ-পরিচালক মোহাম্মদ দেলোয়ার হোসেন।
 
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন বিআইবিএমের ড. মোজাফফর আহমদ চেয়ার প্রফেসর এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. বরকত-এ-খোদা; আইসিএবি-এর প্রেসিডেন্ট মো. শাহাদাৎ হোসেন এফসিএ; অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. মোরশেদুল কবির; সাউথ বাংলা এগ্রিকালচার অ্যান্ড কমার্স ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোসলেহ উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৫ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২৯, ২০২২
এসএমএকে/এসএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa