ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

বিশ্ব বাণিজ্য প্রবৃদ্ধি চলতি বছরে ১ শতাংশ কমবে

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৩১৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৬, ২০১৮
বিশ্ব বাণিজ্য প্রবৃদ্ধি চলতি বছরে ১ শতাংশ কমবে অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন এফবিসিসিআই সভাপতি। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: বিশ্বব্যাপী বিদ্যমান বাণিজ্য যুদ্ধ ও একতরফা বাণিজ্য নীতি সমর্থনের প্রভাবে চলতি বছরে বিশ্ব বাণিজ্যে প্রবৃদ্ধি এক শতাংশ কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে আশঙ্কা করছেন ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (এফবিসিসিআই) সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন। 

তিনি বলেছেন, মন্দা কাটিয়ে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির ঊর্ধ্বমুখী ধারা বজায় রাখার জন্য ২০১৮ সাল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। চলতি বছরে বিশ্ব বাণিজ্যের প্রবৃদ্ধি এক শতাংশ কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে বছরের শেষ নাগাদ বিশ্বব্যাপী এই প্রবৃদ্ধি ৩ দশমিক ৯ শতাংশ হতে পারে।  

বৃহস্পতিবার (১৫ নভেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে এফবিসিসিআই-এর বার্ষিক সাধারণ সভায় সংগঠনটির সভাপতি এসব কথা বলেন।  

তিনি বলেন, অর্থনৈতিক কার্যক্রমের বিদ্যমান শক্তিশালী গতিশীলতা, অনুকূল বাজার পরিস্থিতি, সুবিধাজনক আর্থিক ব্যবস্থাপনা এবং বিশ্বব্যাপী সম্প্রসারণমূলক আর্থিক নীতির এবং অনুকূল দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ব্যবস্থাপনার জন্য বিশ্ব অর্থনীতিতে এই প্রবৃদ্ধি অর্জন সম্ভব হয়েছে।

বাংলাদেশের সামষ্টিক অর্থনৈতিক পরিস্থিতি তুলে ধরে শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বলেন, সামষ্টিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধিতে চলমান স্থিতিশীলতা বজায় রাখার মাধ্যমে নিজেদের পরবর্তী এশিয়ান টাইগার হিসেবে পরিচিত করতে হবে। পাশাপাশি ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হওয়ার লক্ষ্যে বিশ্ব অর্থনৈতিক প্ল্যাটফর্মে নিজেদের উপস্থাপন করার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছে।  

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে তথা টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জন ২০২১ সালের রূপকল্প বাস্তবায়নে ব্যবসায়ীরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।  

এই ব্যবসায়ী নেতা বলেন, সামষ্টিক অর্থনৈতিক চলকসমূহ যেমন-রপ্তানি আয়, আমদানি ব্যয়, বেসরকারি বিনিয়োগ ইত্যাদি প্রবৃদ্ধির ঊর্ধ্বগতিসহ বাজেটে বরাদ্দ ক্রমবর্ধমান রাজস্ব প্রাপ্তি অর্থনীতিতে ব্যবসায়ীদের অবদান প্রতিফলিত হয়।

সভায় জানানো হয়, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বাংলাদেশ তৃতীয়বারের মতো ৭ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি ধরে রাখতে সক্ষম হয়েছে। ফলে নিম্ন মধ্যবিত্ত আয়ের দেশে উন্নীত হয়েছে বাংলাদেশ। পাশাপাশি মাথাপিছু আয় দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ৭৫১ মিলিয়ন মার্কিন ডলারে।  

সংশ্লিষ্ট মেগা প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়িত হলে আগামী দুই বছরে ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জন সম্ভব বলেও মনে করেন ব্যবসায়ীরা।  

অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআইয়ের সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিমসহ অন্যান্য পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।  

বাংলাদেশ সময়: ২১৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৫, ২০১৮
জিসিজি/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।