ঢাকা, শনিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

কলাপাড়ায় ইসলামী ব্যাংকের ৩০৪তম শাখা উদ্বোধন

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯২২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৫
কলাপাড়ায় ইসলামী ব্যাংকের ৩০৪তম শাখা উদ্বোধন ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড’র ৩০৪তম শাখা পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় উদ্বোধন করা হয়েছে। ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মো. ইসকান্দার আলী খান প্রধান অতিথি হিসেবে বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) এ শাখা উদ্বোধন করেন।



বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকের ডিরেক্টর হুমায়ুন বখতিয়ার (এসিপিএ, এফসিএ)।

ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর মো. শামসুজ্জামানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ডেভেলপমেন্ট উইং প্রধান মো. মোশাররফ হোসাইন, এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও বরিশাল জোন প্রধান মো. আব্দুল কুদ্দুস, কলাপাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল মোতালেব তালুকদার, কলাপাড়া পৌরসভার মেয়র এস. এম. রাকিবুল আহসান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিলকিস জাহান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. জাহাঙ্গীর হোসেন অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন।

স্থানীয় ব্যবসায়ী, পেশাজীবী, সমাজসেবক, উলামা ও ব্যাংকের নির্বাহী-কর্মকর্তাসহ সমাজের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

ইঞ্জিনিয়ার মো. ইসকান্দার আলী খান প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্পায়ন, চিকিৎসা, কৃষি, এসএমই, উদ্যোক্তা উন্নয়ন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও অবকাঠামো নির্মাণসহ বাংলাদেশের সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে ভূমিকা পালন করছে ইসলামী ব্যাংক।

পল্লী উন্নয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে এ ব্যাংক ২০ হাজার গ্রামের ১০ লাখেরও বেশি প্রান্তিক মানুষকে অর্থনীতির মূলধারায় সম্পৃক্ত করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ইসলামী ব্যাংকের সেবা সবার জন্য উন্মুক্ত।

কৃষি ও শিল্প-কারখানায় বিনিয়োগ, ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে কলাপাড়া এলাকার মানুষের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করতে তিনি ব্যাংক কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেন।

হুমায়ুন বখতিয়ার বলেন, বাংলাদেশের আমদানি-রফতানি, গার্মেন্টস শিল্প, রেমিট্যান্স আহরণ ও এসএমই বিনিয়োগে ইসলামী ব্যাংকের অবস্থান শীর্ষে। ইসলামী ব্যাংকের সেবা ও বিনিয়োগ সুবিধা গ্রহণ করে কলাপাড়াবাসী নিজেদের অর্থনৈতিক  উন্নয়নের পাশাপাশি জাতীয় উন্নয়নেও ভূমিকা পালন করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
 
বাংলাদেশ সময়:০৯২২ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৫
জেডএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।