ঢাকা, মঙ্গলবার, ২ বৈশাখ ১৪৩১, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬ শাওয়াল ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

রোববার থেকে ২২ কোম্পানির শেয়ার ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫৩ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪
রোববার থেকে ২২ কোম্পানির শেয়ার ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন

ঢাকা: পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ২২টি কোম্পানির শেয়ার রোববার (১৮ ফেব্রুয়ারি) থেকে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করবে।

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করতে ব্যর্থ হওয়া, ছয় মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকা এবং সম্পদের চেয়ে দায় বেশি থাকায় কোম্পানিগুলোকে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে স্থানান্তর করা হয়েছে।

কোম্পানিগুলো হলো- অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, আরামিট সিমেন্টস, আজিজ পাইপস, ডেল্টা স্পিনিং, এফএএস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, জিবিবি পাওয়ার, ইনটেক, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, কেয়া কসমেটিকস, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং, ন্যাশনাল টি, প্রিমিয়ার লিজিং অ্যান্ড ফাইনান্স, রিজেন্ট টেক্সটাইল, রেনউইক যজ্ঞেশ্বর, রিং শাইন টেক্সটাইল, সাফকো স্পিনিং, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, ঢাকা ডাইং, ইউনিয়ন ক্যাপিটাল, উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, ইয়াকিন পলিমার ও জাহিনটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ।

এর মধ্যে ডেল্টা স্পিনিং, কেয়া কসমেটিকস ও উত্তরা ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্টকে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) করতে ব্যর্থ হওয়ার জন্য ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে স্থানান্তর করা হচ্ছে।

জিবিবি পাওয়ার, খুলনা প্রিন্টিং অ্যান্ড প্যাকেজিং, রিজেন্ট টেক্সটাইল ও ইয়াকিন পলিমারকে ছয় মাসের বেশি সময় ধরে বন্ধ থাকার জন্য ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে পাঠানো হচ্ছে।

আর অলটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ, আরামিট সিমেন্টস, আজিজ পাইপস, এফএএস ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট, ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস, ন্যাশনাল টি, প্রিমিয়ার লিজিং অ্যান্ড ফাইনান্স, রেনউইক যজ্ঞেশ্বর, রিং শাইন টেক্সটাইল, সাফকো স্পিনিং, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, ঢাকা ডাইং, ইউনিয়ন ক্যাপিটাল ও জাহিনটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজকে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে নামিয়ে আনা হচ্ছে।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি বিএসইসির জারি করা নির্দেশনায় পরবর্তী লভ্যাংশ ঘোষণার পর শর্ত পরিপালনে ব্যর্থ কোম্পানিগুলোকে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে স্থানান্তরের কথা বলা হয়েছে। তবে আলোচ্য ২২টি কোম্পানি গত কয়েক বছর ধরেই লভ্যাংশ দেয়নি।  

এছাড়া গত কয়েক বছরে এজিএম করেনি, ব্যবসায় ধারাবাহিক লোকসান ও উৎপাদন বন্ধ এবং দায় বাড়তে থাকায় সম্পদ কমে যাওয়াসহ বেশকিছু কারণে তাদের রোববার থেকে ‘জেড’ ক্যাটাগরিতে স্থানান্তর করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০২৪
এসএমএকে/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।