ঢাকা, শনিবার, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ২৮ রবিউস সানি ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

মমতার তৃণমূল ছড়িয়ে গেল ভারতের গোয়া রাজ্যে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৪৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১
মমতার তৃণমূল ছড়িয়ে গেল ভারতের গোয়া রাজ্যে মমতার তৃণমূল ছড়িয়ে গেল ভারতের গোয়া রাজ্যে।

কলকাতা: মমতার দল এবার পা রাখল ভারতের গোয়া রাজ্যে। বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন গোয়ার সাবেক মুখ্যমন্ত্রী লুইজিনহো ফেলেইরো।

তার সঙ্গে যোগ দিলেন গোয়ার প্রদেশ কংগ্রেসের ছয় জন নেতাসহ মোট ১০ জন। কলকাতায় এসে তারা তৃণমূলে যোগ দেন।  

এর মধ্য দিয়ে বাংলা ছাড়িয়ে এবার ভারতের তিন রাজ্য অর্থাৎ ত্রিপুরা, আসাম ও গোয়ায় বিস্তারলাভ করলো পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল তৃণমূল কংগ্রেস।

বিগত ৪০ বছর ধরে কংগ্রেসের একনিষ্ঠ কর্মী ছিলেন গোয়ার লুইজিনহো ফেলেইরো। কংগ্রেসের প্রতীকেই তিনি দু’বার সাংসদ সদস্য ও সাতবার বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন। তবে সাবেক এই মুখ্যমন্ত্রীর হঠাৎ কেন দল পরিবর্তন করলেন? জবাবে লুইজিনহো এদিন বলেছেন, কংগ্রেস পরিবার টুকরো টুকরো হয়ে গেছে।  একাধিক দল গড়ে উঠেছে। এটাই সেরা সময় কংগ্রেস পরিবারকে একত্রিত হয়ে বিজেপিবিরোধী লড়াইয়ের। পাশাপাশি এদিন বিজেপির বিরুদ্ধে অসহিষ্ণুতা, সাংবিধানিক রীতিনীতি লঙ্ঘন, কেন্দ্রীয় সংস্থাগুলোকে ব্যবহারের অভিযোগ তোলেন তিনি।

মূলত ভারতে মোদী সরকারকে উৎখাত করতে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে একজোট হয়ে লড়াইয়ের ডাক দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে কে হবেন ভারতের ভাবী প্রধানমন্ত্রী তা মমতা সময়ের ওপরেই ছেড়ে দিয়েছেন।

মমতা প্রধানমন্ত্রী পদে লড়াই করবেন কিনা সে ইস্যুতে বুধবারের সংবাদ সম্মেলনে সরাসরি মুখ খোলেননি গোয়ার সাবেক মুখ্যমন্ত্রী। তবে তিনি বলেছেন, লড়াইয়ে দিদির উদ্যম রয়েছে। হার না মানা মানসিকতা ওনার। নেতৃত্বের জন্য যোগ্য তিনি।

অন্যদিকে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে একজোট হয়ে লড়াই করার বিষয় বিবেচনায় নিয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর কলকাতার ভবানীপুরের উপনির্বাচনে মমতার বিরুদ্ধে প্রার্থী দেয়নি কংগ্রেস। কিন্তু প্রচারে কংগ্রেসকে ছেড়ে কথা বলছেন না মমতারা। পাশাপাশি মুর্শিদাবাদের মইনুল হক থেকে গোয়ার লুইজিনহো ফেলেইরো, একের পর এক কংগ্রেস নেতাকে ভাগিয়ে আনছে মমতার দল তৃণমূল কংগ্রেস। এরপরও কী ভারতের জাতীয় কংগ্রেস মমতার সঙ্গে একজোট হয়ে বিজেপিবিরোধী লড়াইয়ে সামিল হতে পারবে? উত্তরে ফেলেইরো বলেছেন, এটাই সেরা সময় এক হয়ে লড়াইয়ের। আশা করবো দেশ বাঁচাতে তা বাস্তবায়িত হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২১
ভিএস/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa