ঢাকা, বুধবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৮ মে ২০২২, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

নিজেদের উৎপাদিত কমলালেবুতে আগ্রহ ত্রিপুরাবাসীর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০২০
নিজেদের উৎপাদিত কমলালেবুতে আগ্রহ ত্রিপুরাবাসীর নিজেদের রাজ্যে উৎপাদিত কমলালেবু বিক্রি করছেন ত্রিপুরার ব্যবসায়ীরা। ছবি: বাংলানিউজ

আগরতলা (ত্রিপুরা): ভিটামিন সি সমৃদ্ধ কমলালেবু শীত মৌসুমের অন্যতম একটি ফল। এবছর এরইমধ্যে আগরতলাসহ ত্রিপুরা রাজ্যের বিভিন্ন বাজারে চলে এসেছে ফলটি।

আর এখন নিজেদের উৎপাদিত কমলালেবুতে আগ্রহ দেখাচ্ছে রাজ্যের সাধারণ মানুষ।

আগরতলার সবথেকে বড় পাইকারি বাজার মহারাজগঞ্জ বাজার। এই বাজারে এখন প্রতিদিন ট্রাক ভর্তি হয়ে আসছে কমলালেবু ও সেখান থেকে খুচরা ব্যবসায়ীরা কিনে নিচ্ছেন তা বিক্রি করার জন্য।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ত্রিপুরার পাহাড়ি এলাকাগুলোতে প্রচুর পরিমাণে কমলা চাষ হয়। উত্তর জেলার জম্পুই পাহাড় এক সময় সুস্বাদু কমলার জন্য বিখ্যাত ছিল। কিন্তু এখন গাছগুলোর বয়স বেশী হয়ে যাওয়ায় উৎপাদন কমে এসেছে। তবে উত্তর জেলার শাখানটাং পাহাড়, গোমতী জেলার কিল্লাসহ রাজ্যের অন্যান্য পাহাড়ি এলাকায় নতুন করে কমলা বাগান গড়ে উঠেছে।

বর্তমানে শাখানটাং ও কিল্লা এলাকার বাগানগুলো থেকে প্রচুর পরিমাণে কমলালেবু পাওয়া যাচ্ছে। এ বিষয়ে ব্যবসায়ীরা জানান, এবছর শাখানটাং পাহাড়ের বাগানের কমলালেবু আসছে। আর কিছুদিনের মধ্যে কিল্লাসহ অন্যান্য বাগানের কমলালেবুও বাজারে আসতে শুরু করবে।

বর্তমানে খুচরা বাজারে প্রতিটি কমলালেবু ১৫ থেকে ২৫ রুপিতে বিক্রি হচ্ছে। বাজারে বর্তমানে নিজেদের রাজ্যের বাগানে উৎপাদিত কমলালেবু আসায় এবং তা খেতে সুস্বাদু হওয়ায় সাধারণ মানুষের মধ্যেও এর চাহিদা বেড়েছে। আর মৌসুমের শুরুতে কমলার দাম তুলনামূলক একটু বেশি হলেও কিছুদিনের মধ্যে দাম আরো কমবে বলে জানিয়েছে ব্যবসায়ীরা।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৩, ২০২০।
এসসিএন/এইচএমএস/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa