ঢাকা, শনিবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৮ মে ২০২২, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

সরকারি নোটিশ পেয়ে নড়ে বসেছে হোয়াটসঅ্যাপ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪১ ঘণ্টা, আগস্ট ৫, ২০১৮
সরকারি নোটিশ পেয়ে নড়ে বসেছে হোয়াটসঅ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ

কলকাতা: ভুয়া খবর বা ফেক নিউজের  লাগাম টানতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে অনলাইন মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্যাপকে নোটিশ পাঠায় ভারত সরকার।  সেই নোটিশের পর প্রায় দেড়শ’ কোটির দেশ ভারতে অনলাইনে মেসেজ ফরওয়ার্ড বন্ধে নতুন পরীক্ষা চালালো ফেসবুকের মালিকানাধীন কোম্পানিটি। 

পাশাপাশি ভারতে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীরা একটি মেসেজকে পাঁচটির বেশি ফরওয়ার্ড বা চ্যাট করতে পারবে না বলেও জানানো হয়েছে। স্থানীয় বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবরেও এমনটিই জানিয়েছে।

 

খবরে বলা হয়, হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ভুয়া মেসেজ ছড়িয়ে পড়ায় ভারতের বিভিন্নপ্রান্তে হিংসা-বিদ্বেষ ও উত্তেজনা ছড়ানোর মতো ঘটনা ঘটছে।  

এর সর্বশেষ ঘটনা কর্ণাটক রাজ্যের বিদার জেলায়। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ভুয়া মেসেজ ছড়িয়ে পড়ে সেখানে। নিরীহ নাগরিক বেশে ছেলেধরা ঘুরছে। এ খবর ছড়িয়ে পড়তে ছেলেধরা সন্দেহে এক ব্যক্তিতে পিটিয়ে হত্যা করে বিক্ষুব্ধ জনতা।  

মেসেজটি ছড়িয়ে পড়লে আরো তিনব্যক্তি আক্রমণের শিকার হন। সেই মেসেজ ছড়িয়ে পড়ে মহারাষ্ট্রের ধুলে জেলার রেনপাড়া গ্রামেও। সেখানেও ছেলেধরা সন্দেহে পাঁচজনকে কুপিয়ে খুন করে স্থানীয় লোকজন।  

ফলে নরেন্দ্র মোদী সরকারের রোষে পড়েছে মেসেজিং কোম্পানি হোয়াটসঅ্যাপ। হিংসা-বিদ্বেষ ছড়িয়ে পড়লে ভুয়া খবর রোধে পদক্ষেপ না নিলে কোম্পানিটিকে ‘ষড়যন্ত্রকারী’ আখ্যা দেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়। এমনকি আইনি ব্যবস্থার পাশাপাশি হোয়াটসঅ্যাপ বন্ধ করে দেওয়ার কথাও বলা হয়।  

এরপরই নড়েচড়ে বসে হোয়াটসঅ্যাপ। এরই ধারাবাহিকতায় কোম্পানিটি জানায়, মেসেজ ফরওয়ার্ডের ওপর লাগাম টানতে ভারতে আমরা একটি পরীক্ষা চালাচ্ছি, যা সব হোয়াটসঅ্যাপ গ্রাহকের ওপর চালানো হবে। ভারতে ব্যবহারকারীরা যাতে একটি নির্দিষ্ট মেসেজ পাঁচটির বেশি গ্রাহক বা চ্যাটে পাঠাতে না পারেন, সেজন্যও একটি পরীক্ষা চালানো হচ্ছে। একইসঙ্গে মিডিয়া বা মেসেজের পাশে থাকা ক্যুইক ফরওয়ার্ড সুবিধাটিও মুছে দেওয়া হবে।

প্রতিষ্ঠার উদ্দেশ্যের কথা উল্লেখ করে কোম্পানিটি জানায়, প্রাইভেট মেসেজিং অ্যাপ উপহার দিতে হোয়াটসঅ্যাপ তৈরি হয়েছিল। যাতে বন্ধু ও পরিবারের সদস্যরা একটি সহজ, সুরক্ষিত, ভরসাযোগ্য প্ল্যাটফর্মে নিজেদের বার্তা চালাচালি করতে পারে। তাতে আমরা বিভিন্ন সুবিধা, বৈশিষ্ট্য যোগ করেছি।

বিভিন্ন গ্রুপ বা চ্যাটে একলপ্তে মেসেজ ফরওয়ার্ড করার সুবিধা  বছর খানেক আগে এনেছিল হোয়াটসঅ্যাপ। কিন্তু সেই সুবিধা অপব্যবহার হওয়ায় এবার সেখান থেকে সরে আসছে তারা।  

তবে ফেসবুকের সহযোগী কোম্পানি হোয়াটসঅ্যাপ বলছে, ব্যবহারকারীর মেসেজ সুরক্ষিত ও নিরাপদ রাখতে হোয়াটসঅ্যাপ বদ্ধপরিকর। সে কারণেই হোয়াটসঅ্যাপের বার্তা প্রেরক ও গ্রাহক উভয়ের এনক্রিপ্টেড (তালাবন্দি)। এই ধরনের আরো সুবিধা যুক্ত করে হোয়াটসঅ্যাপকে উন্নত করবো।  

এছাড়া গ্রাহকরা কীভাবে ভুয়া খবর বুঝবেন তা জানাতে বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞাপন দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৫ ঘণ্টা, আগস্ট ০৫, ২০১৮
ভিএস/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa