ঢাকা, বুধবার, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৯ জুন ২০২২, ২৯ জিলকদ ১৪৪৩

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

উত্তর প্রদেশ থেকেই রাজনীতির মাঠে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী!

ভাস্কর সরদার, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১২১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৯, ২০১৭
উত্তর প্রদেশ থেকেই রাজনীতির মাঠে প্রিয়াঙ্কা গান্ধী! প্রিয়াঙ্কা গান্ধী। ফাইল ফটো

কলকাতা: বিভিন্ন সময়েই জাতীয় ও আঞ্চলিক নির্বাচনে কংগ্রেসের জন্য মা সোনিয়া গান্ধী ও ভাই রাহুল গান্ধীর সঙ্গে প্রচারণায় নেমেছিলেন। দু’একটি নির্বাচনী সভার মঞ্চে অতিথি হিসেবেও উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু নিজে কখনো সরাসরি রাজনীতিতে জড়াননি।

এবার সরাসরি মাঠে নামছেন ভারতের অন্যতম জনপ্রিয় নেত্রী সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্ধিরা গান্ধীর নাতনি ও আরেক প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীর কন্যা প্রিয়াঙ্কা গান্ধী।  

সমর্থকদের আশাবাদ আর বিশ্লেষকদের ধারণা, আসন্ন ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চে অনুষ্ঠেয় উত্তর প্রদেশের বিধানসভা নির্বাচনের মাধ্যমেই প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে সক্রিয় হচ্ছেন গান্ধী পরিবারের এ কনিষ্ঠ সদস্য।

কেবল সক্রিয়ই হবেন না, আশা করা হচ্ছে এ নির্বাচনে দলের প্রচারণার প্রধান মুখও হতে পারেন প্রিয়াঙ্কা। যদিও গান্ধী পরিবার বা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করা হয়নি।

উত্তর প্রদেশের গতবারের বিধানসভা নির্বাচনেও কংগ্রেসের পক্ষে কিছু মিছিল ও সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রিয়াঙ্কা। কিন্তু সেবার প্রচারের প্রধান মুখপাত্র ছিলেন তার ভাই রাহুল গান্ধী। ২০১৪ সালের জাতীয় সংসদ (লোকসভা) নির্বাচনেও উত্তর প্রদেশ অংশে প্রচারণায় নেমেছিলেন প্রিয়াঙ্কা। এখানকার আমেথি ও রায় বেরেলি আসনে ভাই রাহুল ও মা সোনিয়ার পক্ষে মাঠে নেমেছিলেন তিনি। কিন্তু নিজের প্রতিদ্বন্দ্বিতার কথা শোনা যায়নি তার মুখে।

এবার উত্তর প্রদেশের সংবাদকর্মীরা জানাচ্ছেন, মাসখানেক আগে থেকেই রাজ্যের মাঠে-ঘাটে, সড়কে-ফটকে দেখা মিলছে প্রিয়াঙ্কার ছবির নির্বাচনী পোস্টারের। এখানে নির্বাচনে কংগ্রেস জোট বাঁধতে পারে সমাজবাদী পার্টির সঙ্গে। সেই সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে রাজ্যের ক্ষমতাসীন সমাজবাদী পার্টির নেতা ও মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদবের সঙ্গে কংগ্রেস ভাইস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধীর সাক্ষাতের খবরে। আর এই সম্ভাবনা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে সমাজবাদী পার্টির নেত্রী ও অখিলেশের স্ত্রী ডিম্পল যাদবের সঙ্গে প্রিয়াঙ্কার যৌথ পোস্টারের প্রচার-প্রচারণায়।  

রাজনীতি বিশ্লেষকরা বলছেন, যদি কংগ্রেস-সমাজবাদী পার্টি নির্বাচনে জোট বাঁধে, তবে এখানে প্রচারণার প্রধান মুখ হবেন প্রিয়াঙ্কা। আর এই প্রথম মিশনে সফল হয়ে গেলে জাতীয় রাজনীতিতেও পুরোপুরি নেমে যাবেন সোনিয়া কন্যা। সেক্ষেত্রে গান্ধী পরিবারের নেতৃত্বাধীন কংগ্রেসের শক্তি বাড়বে আরও।
 
এই সম্ভাবনার খবরে কংগ্রেস কর্মীরা বলছেন, রাজনীতির মঞ্চ প্রস্তুত। অপেক্ষা কেবল নেত্রীর মঞ্চ আলোকিত করার।

বাংলাদেশ সময়: ১৭১০ ঘণ্টা, ১৯ জানুয়ারি, ২০১৬
ভিএস/এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa