ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

বিরোধীদলের বিক্ষোভের জেরে সভা মুলতবি করলেন স্পিকার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২৩
বিরোধীদলের বিক্ষোভের জেরে সভা মুলতবি করলেন স্পিকার ত্রিপুরা বিধানসভা।

আগরতলা, (ত্রিপুরা): ত্রিপুরার বোর্ডের ককবরক ভাষার পরীক্ষা বাংলার পাশাপাশি অন্য ভাষায় ছাত্রছাত্রীরা যাতে লিখে দিতে পারেন সে দাবিতে মঙ্গলবার (২৭ মার্চ) উত্তাল হয়ে উঠে ত্রিপুরা বিধানসভা। এর জেরে সভাকে ১০ মিনিটের জন্য মুলতবি করতে বাধ্য হন স্পিকার বিশ্ববন্ধু সেন।



এদিন বিধানসভার বিরোধীদল নেতা ও তিপ্রামথা দলের বিধায়ক অনিমেষ দেববর্মা ২০২৩ সালে ত্রিপুরা মধ্যশিক্ষা পর্ষদ পরিচালিত মাধ্যমিকে ককবরক ভাষায় পরীক্ষায় একটি নির্দিষ্ট হরফে লিখতে বাধ্য করা সম্পর্কে কলিং আটটেনশন নোটিশ এনে আলোচনা করেন।  

এসময় বিরোধী দলের নেতারা দাবি জানান, এর ফলে যারা পরীক্ষা দিতে পারেনি তাদের যাতে আবারও পরীক্ষায় বসার সুযোগ দেওয়া হবে। রোমান হরফে ককবরক ভাষায় পরীক্ষা দেওয়ায় নিশ্চয়তা দিতে হবে। সেসময় মুখ্যমন্ত্রী ও শিক্ষা দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী অধ্যাপক ডা. মানিক সাহা জানান, এ ঘটনার তদন্ত করার নির্দেশ দিয়েছি। এ বিষয়টি নিয়ে পরে আলোচনা করা হবে। কিন্তু বিরোধী দলের দাবি সভাই তাদের প্রস্তাব মেনে নিতে হবে।

এ সময় তিপ্রামথার সব সদস্যরা ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন ও তারা স্পিকারকে ঘিরে ধরেন। তারা তাদের দাবিকে মেনে নেওয়ার জন্য স্লোগান দিতে থেকেন। এভাবে চলে বেশ কিছুক্ষণ। একপর্যায়ে স্পিকার সভা ১০ মিনিটের জন্য মুলতবি করতে বাধ্য হন। ১০ মিনিট পরে অবশ্য আবার সভা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৮, ২০২৩
এসসিএন/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।