ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১ আশ্বিন ১৪২৯, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চট্টগ্রামে জন্মাষ্টমীর মহাশোভাযাত্রা ১৯ আগস্ট

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২২
চট্টগ্রামে জন্মাষ্টমীর মহাশোভাযাত্রা ১৯ আগস্ট সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য দেন জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ-কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি সুকুমার চৌধুরী।

চট্টগ্রাম: শ্রীশ্রী জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ-কেন্দ্রীয় কমিটির আয়োজনে ১৮ আগস্ট থেকে ২২ আগস্ট পর্যন্ত পাঁচদিন সনাতন ধর্মের প্রাণপুরুষ যুগাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের শুভ জন্মতিথি জন্মাষ্টমী উৎসব দেশব্যাপী উদযাপিত হবে।  

এ উপলক্ষে কেন্দ্রীয় পরিষদের পক্ষ থেকে জেএম সেন হলে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার আয়োজন করা হয়েছে।

এছাড়াও বিভিন্ন জেলায় বস্ত্র বিতরণ, রক্তদান, অনাথ ও দুস্থদের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ, গীতাপাঠ, সন্ধ্যারতি, জন্মাষ্টমী পূজা ও ভোগ, দেশ ও জাতির কল্যাণে এবং বৈশ্বিক করোনা মহামারী হতে মুক্তির জন্য সমবেত প্রার্থনা করা হবে। ১৯ আগস্ট সকাল ৯টায় বের করা হবে ঐতিহাসিক মহাশোভাযাত্রা। ধর্মসম্মেলনে উপস্থিত থাকবেন রাষ্ট্রীয় নেতৃবৃন্দ।  

শনিবার (১৩ আগস্ট) সকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের বঙ্গবন্ধু হলে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এসব কথা বলেন জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ বাংলাদেশ-কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি শিল্পপতি সুকুমার চৌধুরী।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, বিগত বছরে শারদোৎসবে কুমিল্লার পূজামণ্ডপে মিথ্যা গুজব ছড়িয়ে পরিকল্পিতভাবে নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর এবং চট্টগ্রামের ঐতিহাসিক জেএম সেন হলের পূজামণ্ডপসহ দেশের বিভিন্ন পূজামণ্ডপে ভাংচুরসহ সনাতনী সমাজের ওপর পৈশাচিক নির্যাতন চালানো হয়েছে এবং কয়েকজন নিরীহ সনাতনী ভক্তকে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়েছে। যা পুরো বিশ্বের বিবেকবান মানুষকে নাড়া দিয়েছে। পরিষদ এই নারকীয় সাম্প্রদায়িক দাঙ্গার তীব্র প্রতিবাদ জানায় এবং এসব ঘটনার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছে।

তিনি বলেন, সম্প্রতি নড়াইলে হিন্দু সম্প্রদায়ের একজন শিক্ষাবিদ অধ্যক্ষ তপন কুমার সরকারকে প্রকাশ্যে জুতার মালা পরিয়ে যে হেনস্তা করা হয়েছে এবং সাভারের আশুলিয়ায় স্কুল শিক্ষক উৎপল কুমার সরকারকে ক্রিকেটের স্ট্যাম্প দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। জড়িত ব্যক্তিদের শাস্তির আওতায় আনার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানাচ্ছি। এছাড়া নড়াইলে মিথ্যা গুজব রটিয়ে সম্প্রতি একশ্রেণির সাম্প্রদায়িক জনগোষ্ঠি হিন্দু সম্প্রদায়ের ঘর-বাড়ি পুড়িয়ে দেয় এবং শারীরিকভাবে নির্যাতন চালায়। এসব সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থানে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করছি এবং এসব ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক বিচারের দাবি জানাচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, শ্রীশ্রী জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ ধর্ম ও কর্মের সমন্বয়ে গভীরভাবে বিশ্বাসী। এই পরিষদের মূল কথা- অহিংস মনোভাব ও সহিষ্ণুতা। সহিষ্ণু ও অসাম্প্রদায়িক ধর্মীয় চেতনা ও চিন্তা দেশের উন্নয়ন ও সামাজিক অবক্ষয়ের হাত থেকে দেশকে রক্ষা করতে পারে। যুগে যুগে যে সমতা, বিদ্বেষহীনতা ও সহিষ্ণুতার অমর বাণী সনাতন ধর্ম প্রচার করেছে, তা অনুসরণ করলে মানুষ স্বদেশকে প্রেম ও মানবতার মূল্যবোধে উজ্জীবিত করতে পারে। বিগত ৩৯ বছর ধরে জন্মাষ্টমী পরিষদ-বাংলাদেশ সেই আদর্শ বাস্তবায়নের মাধ্যমে সাড়ম্বরে বিভিন্ন কর্মসূচির আলোকে জন্মাষ্টমী পালন করে আসছে। এবছরও বিগত বছরগুলোর ধারাবাহিকতায় মহাসাড়ম্বরে এবং মহামর্যাদায় জন্মাষ্টমী উৎসব উদযাপিত হবে।  

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, পাঁচদিনব্যাপী বর্ণাঢ্য আয়োজনমালায় রয়েছে- ১৮ আগস্ট বিকাল ৪টায় প্রধানমন্ত্রীর সাথে ভার্চুয়ালি সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠান। উদ্বোধক থাকবেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার। প্রধান অতিথি থাকবেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল কালাম আবদুল মোমেন। সন্ধ্যা ৭টায় ধর্মসম্মেলনে উদ্বোধক থাকবেন চট্টগ্রাম রামকৃষ্ণ সেবাশ্রমের সম্পাদক শ্রীমৎ শক্তিনাথানন্দজী মহারাজ। অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রীয় অতিথি, বিদেশী কূটনীতিকবর্গ ও মহাত্মা মহারাজবৃন্দ উপস্থিত থাকবেন।  

১৯ আগস্ট সকাল ৯টায় ঐতিহাসিক মহাশোভাযাত্রা উদ্বোধন করবেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন। প্রধান অতিথি থাকবেন তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ। দুপুর ১টায় মাতৃসম্মেলনে প্রধান অতিথি থাকবেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা। সন্ধ্যা ৭টায় ধর্মসম্মেলনে মঙ্গলপ্রদীপ প্রজ্বালন করবেন ঋষিধামের মোহন্ত শ্রীমৎ সুদর্শনানন্দ পুরী মহারাজ। উদ্বোধক থাকবেন কৈবল্যধামের মোহন্ত মহারাজ শ্রীমৎ কালীপদ ভট্টাচার্য্য। আশীর্বাদক থাকবেন পাঁচুরিয়া তপোবন আশ্রমের অধ্যক্ষ শ্রীমৎ স্বামী রবিশ্বরানন্দ পুরী মহারাজ। প্রধান অতিথি থাকবেন বাণিজ্য মন্ত্রী টিপু মুনশী। অতিথি থাকবেন শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। রাত ১২টায় জন্মাষ্টমী পূজা। ২০ ও ২১ আগস্ট অহোরাত্র ষোড়শপ্রহরব্যাপী মহানামযজ্ঞ। প্রতিদিন দুপুরে ও রাতে রয়েছে মহাপ্রসাদ বিতরণ। ২৩ আগস্ট ব্রাহ্মমুহূর্তে মহানামযজ্ঞের পূর্ণাহুতি।  

সংবাদ সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য দেন জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী প্রবীর কুমার সেন। উপস্থিত ছিলেন জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি সুজিত কুমার বিশ্বাস, চট্টগ্রাম মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লায়ন আশীষ কুমার ভট্টাচার্য্য, সাধারণ সম্পাদক হিল্লোল সেন উজ্জ্বল, চট্টগ্রাম মহানগর জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সভাপতি লায়ন দুলাল চন্দ্র দে, সাধারণ সম্পাদক লায়ন শংকর সেনগুপ্ত, মহাশোভাযাত্রা কমিটির আহবায়ক মাইকেল দে, পরিষদ কর্মকর্তা লায়ন তপন কান্তি দাশ, প্রকৌশলী আশুতোষ দাশ, তাপস কুমার নন্দী, আশীষ চৌধুরী, শ্রীপ্রকাশ দাশ অসিত, সুমন দেবনাথ, প্রকৌশলী সুভাষ গুহ, প্রকৌশলী তুহিন রায়, ডা. বিধান মিত্র, রতন আচার্য্য, সজল দত্ত, এস প্রকাশ পাল, ডা. বিদ্যুৎ ভূষণ দাশগুপ্ত, সমীরণ মল্লিক, নিউটন মজুমদার, মৌসুমী চৌধুরী, নন্দিতা দাশগুপ্তা, তিশা চৌধুরী প্রমুখ।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৫৪৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১৩, ২০২২
এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa