ঢাকা, শুক্রবার, ২২ আশ্বিন ১৪২৯, ০৭ অক্টোবর ২০২২, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক চেয়ারম্যান গণ-পাঠাগারে ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ উপহার

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৩ ঘণ্টা, আগস্ট ৭, ২০২২
মুক্তিযোদ্ধা ফজলুল হক চেয়ারম্যান গণ-পাঠাগারে ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ উপহার লেখক শওকত বাঙালির হাতে অসমাপ্ত আত্মজীবনী তুলে দেন রাউজান পৌর মেয়র জমির উদ্দিন পারভেজ।

চট্টগ্রাম: রাউজান পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা যুবলীগ সভাপতি জমির উদ্দিন পারভেজ জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা একে ফজলুল হক চেয়ারম্যান বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ ও স্নেহধন্য ছিলেন উল্লেখ করে বলেছেন, প্রকৃতপক্ষে বঙ্গবন্ধু আমাদের অনুভূতি ও অন্তরাত্মায় মিশে আছেন। জাতির পিতার প্রতি আমাদের ঋণ, শ্রদ্ধা, ভালোবাসা অশেষ।

বঙ্গবন্ধু মুজিব মানেই বাংলার মুক্ত আকাশ- বাঙালির অবিরাম মুক্তির সংগ্রাম এবং বাঙালি জাতির অস্তিত্ব।

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু মানেই বাঙালির মৃত্যুঞ্জয়ী চেতনা, সাম্য-অধিকার-গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা এবং দেশের জনগণের প্রতি মানুষের প্রতি ভালোবাসা।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর, রাউজান থানা আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, ১১ নম্বর পশ্চিম গুজরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের প্রথম নির্বাচিত চেয়ারম্যান এবং যুদ্ধকালীন মুজিব বাহিনী প্রধান একে ফজলুল হক চেয়ারম্যান গণ-পাঠাগারের প্রধান পৃষ্ঠপোষক লেখক-সাংবাদিক শওকত বাঙালির হাতে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনীর ৪৭টি কপি তুলে দিতে গিয়ে এসব কথা বলেন রাউজানের মেয়র। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৭তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে মেয়র ব্যক্তিগতভাবে এ উপহার দেন।

এ সময় শওকত বাঙালি বলেন, মুক্তিযুদ্ধে সক্রিয় অংশগ্রহণ করে সার্টিফিকেট গ্রহণ করেননি এমন হাজারো মুক্তিযোদ্ধা গত হয়েছেন। সেই বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সবচে বড় সার্টিফিকেট দেশের জন্য যুদ্ধে অংশগ্রহণ।  
৫০ বছর আগে সার্টিফিকেটের আশায় এবং আজকের ভাতা পাবার লোভে কোনো মুক্তিযোদ্ধা রণাঙ্গনে যাননি বলে অভিমত ব্যক্ত করেন এই মুক্তিযোদ্ধাপুত্র।

রোববার (৭ আগস্ট) রাউজান পৌরসভার মেয়র কার্যালয়ে বই হস্তান্তরের সময় উপস্থিত ছিলেন রাউজান পৌর কাউন্সিলর জানে আলম জনি, রাউজান পৌরসভা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. আবু সালেক, মো. তকি সিকদার সর্বজনীন মসজিদ ও কবরস্থান পরিচালনা কমিটির সভাপতি শিক্ষানুরাগী মো. ইউসুফ, সহ-সভাপতি দিদার কামাল ও কোষাধ্যক্ষ মো. মহিউদ্দিন পারভেজ, সাবেক চেয়ারম্যান নুরুল হকের ছেলে মো. জামাল উদ্দিন, তরুণ শিল্পোদ্যোক্তা শওকত জামান রাসেল, আইন কলেজ ছাত্রলীগ নেতা কামরুল মিন্টু, তরুণ কৃষি উদ্যোক্তা নোমান তালুকি প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ আমাদের এই উপমহাদেশের রাজনৈতিক সাহিত্য বা আত্মজৈবনিক সাহিত্যের ইতিহাসের ধারায় এক অসাধারণ গুরুত্বপূর্ণ গ্রন্থ। ধ্বংসস্তূপের মাঝে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা অর্থাৎ ইতিহাসের প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রটির উৎসমূলকে বুঝতে গেলে এ-বইটি পাঠ অপরিহার্য। বিশেষ করে যারা তরুণ, যুবক; যারা আগামী বাংলাদেশ বিনির্মাণ করবে, তাদের জন্য এ গ্রন্থটি পাঠ করা জরুরি, কেননা এই গ্রন্থটি আগামী বাংলাদেশের কারিগরদের চলার পথের পাথেয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫০ ঘণ্টা, আগস্ট ০৭, ২০২২
এআর/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa