ঢাকা, শনিবার, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ২১ রবিউস সানি ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

চট্টগ্রাম জেলা রোভার স্কাউটসের কমিটিতে জালিয়াতি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২১
চট্টগ্রাম জেলা রোভার স্কাউটসের কমিটিতে জালিয়াতি ...

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম জেলা রোভার স্কাউট কমিটি গঠন করার পর জালিয়াতির মাধ্যমে নতুন কমিটির অনুমোদন নেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ২০২০ সালের ৬ মার্চ চট্টগ্রাম জেলা রোভারের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

জানা গেছে, নিয়ম অনুযায়ী কাউন্সিলের কার্যবিবরণী  অঞ্চলে প্রেরণ করে কার্যক্রমও শুরু হয়। ২০২০ সালের ২৯ আগস্ট চট্টগ্রাম জেলা রোভারের কমিশনার ৭ জন সহকারী কমিশনার ও ১ জন ডিআরএসএল নিয়োগ দেন। কিন্তু এ নিয়োগের পর নির্বাহী কমিটির সম্পাদক ও সাবেক সম্পাদকের যোগসাজসে জালিয়াতির মাধ্যমে ২০২০ সালের ২৪ আগস্ট তারিখ দেখিয়ে ৩৩ জনের একটি পূর্ণাঙ্গ কমিটির ভুয়া তালিকা তৈরি করা হয়, যা জেলা সভাপতি ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের অগোচরে তার স্বাক্ষরে প্রকাশ করা হয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এর আগে জেলা সভাপতির স্বাক্ষরে  জেলা রোভারের নির্বাচিত বৈধ কমিটির তালিকা রোভার অঞ্চল ঢাকায় প্রেরণ করা হয়। একই সভাপতি স্বাক্ষরিত দুইটি কমিটির তালিকা রোভার অঞ্চল ঢাকায় প্রেরণ করা রোভার স্কাউটের নিয়ম পরিপন্থী।  

অভিযোগ রয়েছে, জামায়াত-শিবির নিয়ন্ত্রিত চিহ্নিত মহল জেলা রোভারের ক্ষমতা দখল করে  অবৈধভাবে কার্যক্রম চালাচ্ছে। ২০২০ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক এবং চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কাছে এ বিষয়ে অভিযোগ করা হয়েছিল। এর প্রেক্ষিতে রোভার অঞ্চলের সম্পাদকের নেতৃত্বে ২০২০ সালের ৪ নভেম্বর তদন্ত কমিটি গঠন করা হলেও তার রিপোর্ট এখনও প্রকাশ হয়নি। চট্টগ্রাম জেলা রোভার অঞ্চলের সম্পাদক, যুগ্ম সম্পাদক ও গুটিকয়েক আঞ্চলিক কর্মকর্তা তাদের সমর্থকদের ক্ষমতায় রেখে অবৈধভাবে কার্যক্রম চালানোর সুযোগ করে দেওয়ার মাধ্যমে জেলা রোভারকে ধ্বংস করে দিচ্ছে।  

স্কাউটিং এর আড়ালে সংগঠিত হচ্ছে জামায়াত-শিবির

স্কাউট বিশ্বব্যাপী একটি অরাজনৈতিক, স্বেচ্ছাসেবামূলক প্রতিষ্ঠান। স্কাউট আন্দোলনকে ধর্মনিরপেক্ষ প্রতিষ্ঠানও বলা হয়। স্কাউট একটি আন্দোলন- যার কাজ হলো আনন্দের মাধ্যমে শিক্ষা দান। এই কার্যক্রম প্রতিটি মানুষকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে তোলার চেষ্টা চালায়। স্কাউট আন্দোলন সারা বিশ্বে ভ্রাতৃত্বের আদর্শকে প্রতিষ্ঠিত করে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক রোভার স্কাউট লিডার বাংলানিউজকে বলেন, বর্তমানে স্কাউটিংয়ের নামে সারাদেশে জামায়াতপন্থী শিক্ষকরা স্কাউট রোভার লিডার হিসাবে যুক্ত হয়ে নানা ধরনের সুযোগ-সুবিধা নিচ্ছে। দেশের মাদ্রাসা, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে গত পাঁচ বছর ধরে অনেকটা কৌশলী অবস্থান নিয়েছে জামায়াত-শিবির। প্রকাশ্যে রাজনীতি না করলেও স্কাউটিং সহ বিভিন্ন সংগঠনে ঢুকে সংগঠিত হচ্ছে তারা। স্কাউট আন্দোলনে সম্পৃক্ত হয়েছে শিবির।

নাজিরহাট কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি ও ছাত্রলীগ নেতা আমিনুল করিম জাহাঙ্গীর, শহীদ রুবেল ও অধ্যক্ষ গোপাল কৃষ্ণ হত্যা মামলার আসামি জামায়াত নেতা ফজলুর কাদের চৌধুরী নেতৃত্বে জামায়াত- শিবির নেতা ও অনুসারীদের রোভার স্কাউট, গার্লস গাইড  এবং রেড ক্রিসেন্টের মতো স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনে ঢুকিয়ে তাদের রাজনৈতিক পরিচয় আড়াল করা হচ্ছে।  

বাংলাদেশ স্কাউটস চট্টগ্রাম জেলা রোভার চবি’র গ্রুপ সম্পাদক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ হেলাল উদ্দিন বাংলানিউজকে বলেন, ২০২০ সালের ২৯ আগস্ট চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এর গ্রুপ সম্পাদক হিসেবে আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এতে স্বাক্ষর করেন জেলা রোভার কমিশনার প্রফেসর মোহাম্মদ মুজিবুল হক চৌধুরী। গত বছরের ৬ মার্চ চট্টগ্রাম জেলা রোভারের নির্বাচনে বিজয়ীদের নিয়ে গঠিত কমিটির তালিকা নিয়ে নয়ছয় হয়েছে বলে শুনেছি।

বাংলাদেশ সময়: ১১৪০ ঘণ্টা, অক্টোবর ২১, ২০২১ 
এমআই/এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa