ঢাকা, মঙ্গলবার, ৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১ মে ২০২৪, ১২ জিলকদ ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

দেশ নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে: নাছির

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
দেশ নিয়ে গভীর ষড়যন্ত্র চলছে: নাছির ...

চট্টগ্রাম: মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ যখন সাফল্যের শিখড়ে তখনই এদেশকে পদানত করার জন্য গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। এই ষড়যন্ত্র অতীতেও মোকাবেলা করেছি, এখনো করছি এবং ভবিষ্যতেও করবো।

প্রধানমন্ত্রীর আরাধ্য স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আগেই আমাদের সুশিক্ষিত ও ষ্মার্ট নাগরিক হিসেবে পরিণত হতে হবে। আমাদের নতুন প্রজন্মকে যারা ইতিহাস বিকৃতির মিথ্যা পাঠ দিয়েছে তাদেরকে নির্মূল করতে হবে।
অসম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক, সাম্য ও সম্প্রীতির বাংলাদেশ গড়ে তুলতে হবে।  

বুধবার (১৭ এপ্রিল) নগরের থিয়েটার ইনিস্টিটিউট মিলনায়তনে ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, মুজিবনগর সরকার আজকের এই দিনে শপথ গ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশর অস্তিত্বকে বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতির বার্তা পৌঁছে দেয়। আজ যারা আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে তারা ৭ মার্চ, ২৬ মার্চ, ১৬ ডিসেম্বর, ১৭ এপ্রিলকে স্বীকার করে না।  

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, মুজিবনগর সরকার ৭১’র এই দিনে শপথ গ্রহণের মাধ্যমে মহান মুক্তিযুদ্ধের প্রথম ভিত্তি সোপান নির্মিত হয়। এই সোপান থেকে উৎসারিত বাংলাদেশের স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের মহান বিজয়। এই ইতিহাস স্বর্ণাক্ষরে লেখা রয়েছে। যারা এই সত্যকে অস্বীকার কারে তারা পাকিস্তানি প্রেতাত্মা।  

মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরও বক্তব্য দেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী, অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, উপদেষ্টা একেএম বেলায়েত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ, উপদেষ্টা শেখ মাহমুদ ইসহাক, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান, আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর প্রমুখ।

সভার শুরুতে মহান মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় এক মিনিট নিরবতা পালন করা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।