ঢাকা, বুধবার, ৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১০ শাবান ১৪৪৫

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

বিএসসি এখন সরকারের পরিবহন খাতে লাভজনক প্রতিষ্ঠান

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৩
বিএসসি এখন সরকারের পরিবহন খাতে লাভজনক প্রতিষ্ঠান ...

চট্টগ্রাম: বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন (বিএসসি) বর্তমানে সরকারের পরিবহন খাতে একটি লাভজনক প্রতিষ্ঠান উল্লেখ করে বিএসসির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কমডোর মো. জিয়াউল হক বলেছেন, ২০২১-২২ অর্থবছরে বিএসসি ২২৫ কোটি টাকা লাভ করেছে। আগামীতে আরও নতুন নতুন জাহাজ বিএসসির বহরে যুক্ত হওয়ার মাধ্যম বিএসসির কার্যক্রম আরও বেশি সম্প্রসারিত হবে যার প্রেক্ষিতে বেশি মুনাফা অর্জনের পাশাপাশি কর্মস্থান সৃষ্টিসহ দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে বিএসসি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

 

রোববার (৫ ফেব্রুয়ারি) বিএসসির ৫১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কেক কাটা হয়।

 

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ ও দেশপ্রেমে উজ্জীবিত হয়ে বিএসসির উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখে সমুদ্র পরিবহনে জনগণ ও সরকারের অংশীদারিত্ব নিশ্চিতকরণের জন্য বিএসসির চেয়ারম্যান সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিজ দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনের আহবান জানান।  

কর্মসূচিটি তত্বাবধানে ছিলেন বিএসসির উপ-সচিব ও মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) মোহাম্মদ আশরাফুল আমিন।  

সূত্র জানায়, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সমুদ্র পরিবহনে জনগণ ও সরকারের অংশীদারিত্ব নিশ্চিত করতে স্বদেশ প্রত্যাবর্তনের মাত্র ২৫ দিনের মধ্যে ১৯৭২ সালের ৫ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রপতির ১০ নম্বর আদেশমূলে প্রতিষ্ঠা করেন আন্তর্জাতিক সমুদ্রপথে বাণিজ্যিক জাহাজ পরিচালনাকারী একমাত্র রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশন তথা বিএসসি। উপকূলবর্তী একটি দেশে নৌবাণিজ্যের গুরুত্ব উপলব্ধি করে সরকার গঠনের পর বৈদেশিক বাণিজ্যের যাবতীয় কর্মকাণ্ড যথাযথভাবে পালন করতে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব নিজের হাতে রাখেন তিনি।  

১৯৭২ সালে অর্থাৎ বিএসসির যাত্রা শুরুর সময় প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব কোনো জাহাজ ছিল না। বঙ্গবন্ধুর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এবং ভারতের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী এবং বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু ইন্দিরা গান্ধীর সহায়তায় বিএসসির প্রথম জাহাজ হিসেবে যুক্ত হয় কার্গো জাহাজ ‘বাংলার দূত’।  

১৯৯১ সালে ‘বাংলার শিখা’ সংস্থার জাহাজ বহরে যুক্ত হওয়ার পর দীর্ঘ ২৭ বছরে আর কোনো জাহাজ যুক্ত হয়নি। ২৭ বছর পর বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানন্ত্রীর প্রচেষ্টায় চীন সরকারের ঋণ সহায়তায় ৬টি নতুন জাহাজ (প্রতিটি প্রায় ৩৯,০০০ ডিডব্লিউটি সম্পন্ন ৩টি নতুন অয়েল-ক্যামিকেল ট্যাংকার এবং ৩টি নতুন বাল্ক ক্যারিয়ার) বিএসসির জাহাজ বহরে যুক্ত হয়।  

২০১৮ সালের ১ নভেম্বর প্রথম জাহাজ ‘বাংলার জয়যাত্রা’ এবং বাকি পাঁচটি জাহাজ ২০১৯ সালের ২৮ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুভ উদ্বোধন করেন। জাহাজগুলো আন্তর্জাতিক সামুদ্রিক পরিমণ্ডলে বাংলাদেশের পতাকা সগৌরবে বহন করে চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২৩
এআর/পিডি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।