ঢাকা, বুধবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৭ শাওয়াল ১৪৪৫

ক্রিকেট

বাংলাদেশের ভালো শুরুর পরও শ্রীলঙ্কার বড় সংগ্রহ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৪৩ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
বাংলাদেশের ভালো শুরুর পরও শ্রীলঙ্কার বড় সংগ্রহ

শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে চাপেই পড়ে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। কিন্তু পরে ঘুরে দাঁড়ায় তারা।

বাংলাদেশের বোলাররাও সময়ের সঙ্গে ধরে রাখতে পারেননি চাপ। কুশল মেন্ডিস-সাদিরা সামারাবিক্রমার জুটির পর শেষটা দারুণ করেন চারিথ আসালঙ্কা। তাই বাংলাদেশের সামনে দাঁড়ায় বড় লক্ষ্য।  

সোমবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ৩ উইকেট হারিয়ে ২০৬ রান করেছে লঙ্কানরা।

টস জিতে শ্রীলঙ্কাকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় বাংলাদেশ। শরিফুল ইসলামকে বোলিংয়ে নিয়ে আসেন অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। শরিফুলের করা প্রথম বলে অবশ্য স্লিপ দিয়ে ক্যাচ ওঠে, কিন্তু তখন ওই জায়গায় কোনো ফিল্ডার ছিলেন না; হয়ে যায় চার। পরের বলেই উইকেট নেন শরিফুল। তার ফুল লেংথের বল ড্রাইভ করতে গেলেও ঠিকঠাক টাইমিং হয়নি আভিশকা ফার্নান্দোর, ক্যাচ যায় লিটনের কাছে।  

পরের ওভারে তাসকিন আহমেদ এসে দেন ৫ রান, দুই ওভারে শ্রীলঙ্কার রান ছিল কেবল ৯। পরের ওভারে শরিফুল একটি চার ও ছক্কা হজম করেন, চতুর্থ ওভারে মাহেদী হাসানকে আনেন শান্ত; কিন্তু তিনি দেন ১১ রান। পঞ্চম ওভারে এসে দলকে সাফল্য এনে দেন তাসকিন। একটু অতিরিক্ত বাউন্স করা বলে পুল করতে গিয়ে মিড উইকেটে ক্যাচ দেন কামিন্দু মেন্ডিস। ১৪ বলে ১৯ রান আসে তার ব্যাট থেকে।

এরপর নতুন সঙ্গী সাদিরা সামারাবিক্রমাকে নিয়ে দলকে এগিয়ে নেন কুশল মেন্ডিস। পাওয়ার প্লের ছয় ওভারে ৪৫ রান করে শ্রীলঙ্কা। ১১তম ওভারে রিশাদ হোসেন ১৮ ও এর পরের ওভারে শরিফুল ইসলাম ২১ রান হজম করেন। বাংলাদেশকে আবার ম্যাচে ফেরান রিশাদই।

তার বলে লং অফে কুশল মেন্ডিসের ক্যাচ নেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ৬ চার ও ৩ ছক্কায় ৩৬ বলে ৫৯ রান করে ফিরে যান তিনি।  ভাঙে সামারাবিক্রমার সঙ্গে ৬১ বলে ৯৬ রানের জুটি । জুটি ভাঙার পরের ওভারে এসে কোনো বাউন্ডারি হজম না করে ৬ রান দেন মাহেদী।

কিন্তু পরের চার ওভারে ৬৪ রান হজম করেন বাংলাদেশের বোলাররা। এর মধ্যে শেষ ওভারে ২৪ রান দেন মোস্তাফিজুর রহমান। ৪৮ বলে ৬১ রান করে সামারাবিক্রমা ও আসালঙ্কা অপরাজিত থাকেন ২১ বলে ৪৪ রানে।  

বাংলাদেশ সময় :  ১৯৪৩ ঘণ্টা, মার্চ ৪, ২০২৪
এমএইচবি/এএইচএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad