ঢাকা, সোমবার, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৫ আগস্ট ২০২২, ১৬ মহররম ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

পঞ্চগড়ে ৩০৩ মিলিমিটার বৃষ্টি, কর্মহীন শ্রমজীবীরা

সোহাগ হায়দার, ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৫ ঘণ্টা, জুন ২৮, ২০২২
পঞ্চগড়ে ৩০৩ মিলিমিটার বৃষ্টি, কর্মহীন শ্রমজীবীরা

পঞ্চগড়: ‘নীল নবঘনে আষাঢ়গগনে তিল ঠাঁই আর নাহি রে। ওগো, আজ তোরা যাস নে ঘরের বাহিরে।

কালিমাখা মেঘে ও পারে আঁধার ঘনিয়েছে দেখ্‌ চাহি রে। ’ কবি গরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের আষাঢ় প্রবাদটি মনে করে দিয়েছে উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ের লাগাতার বৃষ্টি।

আষাঢ়ের বৃষ্টিতে দেশের উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩০৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। এতে করে কর্মহীন হয়ে বিপাকে পড়েছেন জেলার খেটে খাওয়া শ্রমজীবী মানুষেরা। অপরদিকে লাগাতার বৃষ্টিপাতে অধিকাংশ নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ার পাশপাশি জেলার সব নদ-নদীর পানি বাড়তে শুরু করেছে।

আবহাওয়া অফিস বলছে টানা এই বৃষ্টিতে সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অফিসের তথ্যমতে গত সোমবার (২৭ জুন) সন্ধ্যা ৬টা থেকে মঙ্গলবার (২৮ জুন) সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত জেলার তেঁতুলিয়া উপজেলায় ৩০৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। জেলায় বৃষ্টিপাত এখনো অব্যাহত রয়েছে। লাগাতার ভারী বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে অনেক কৃষি জমি, বসতবাড়ি ও ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানে পানি ঢুকে বিপাকে পড়েছে সাধারণ মানুষ।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাসেল শাহ্ বাংলানিউজকে বলেন, এই সময়ে মৌসুমী বায়ু বেশি সময় ধরে সক্রিয় থাকছে। অপরদিকে বঙ্গোপসাগরের ওপরে জমে থাকা মেঘ দেশের উত্তরবঙ্গে ছড়িয়ে পড়ে হিমালয়ের কাছাকাছি এসে ভারী বৃষ্টিতে রূপ নেয়। তাই এই বৃষ্টিপাত ভারত থেকে পঞ্চগড় জেলা দিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। আগামী কয়েকদিন এ জেলায় বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে।  

এদিকে, লাগাতার বৃষ্টির কারণে জনজীবনে দুর্ভোগ নেমে এসেছে। সোমবার থেকে লোকজন কেউ প্রয়োজন ছাড়া বাইরে যাচ্ছে না।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৫ ঘণ্টা, জুন ২৮, ২০২২
এমএমজেড

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa