ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

জলবায়ু সচেতনতায় বাস ঘুরবে সারাদেশ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১৩৪ ঘণ্টা, মার্চ ১৫, ২০২০
জলবায়ু সচেতনতায় বাস ঘুরবে সারাদেশ

ঢাকা: পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে তৈরি সচেতনতামূলক বার্তা নিয়ে সারাদেশে ঘুরবে একটি ডিজিটাল বাস। বাসটিতে রয়েছে এলইডি ডিসপ্লে, মোবাইল থ্রিডি সিনেমা সিস্টেমসহ ওয়াইফাই সেবা।

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন সচিবালয়ের সামনে ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনের পাশে বাসটি উদ্বোধন করেন।
 
বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট (বিসিসিটি) বাস্তবায়নাধীন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্ভাবনী উদ্যোগ ‘জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড গঠন’ বিষয়ে প্রণীত ব্র্যান্ডিং পরিকল্পনা বাস্তবায়ন’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় এক কোটি ৫০ লাখ টাকা ব্যয়ে সংগৃহীত হয় এ জলবায়ু বাস।


 
ডিজিটাল এলইডি ডিসপ্লে, মোবাইল থ্রিডি সিনেমা সিস্টেম, ইন্টারেক্টিভ কিয়স্ক, গ্রিন এনার্জির জন্য সোলার প্যানেল, ওয়াইফাই ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক তথ্য সম্বলিত আর্কাইভসহ বিশেষ এ জলবায়ু বাসটি তৈরি করা হয়েছে।
 
পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে তৈরি সচেতনতামূলক টেলিভিশন বিজ্ঞাপন, রেডিও বিজ্ঞাপন, থিম সং এবং ডকুমেন্টারি জলবায়ু বাসের মাধ্যমে দেশব্যাপী প্রচার করা হবে।

এসময় মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অনুষঙ্গ জলবায়ু বাস। এ বাসের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন সম্পর্কে অবহিতকরণ ও সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে।
 
জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ক্ষতিকর প্রভাব মোকাবিলায় বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর উল্লেখ করে মন্ত্রী জানান, সরকার জলবায়ু পরিবর্তনজনিত ঝুঁকি মোকাবিলায় বাংলাদেশ জলবায়ু পরিবর্তন কৌশল ও কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে। বিসিসিএসএপি-২০০৯ এ বর্ণিত কর্মসূচি বাস্তবায়নের জন্য ২০০৯-১০ অর্থবছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিজস্ব উদ্যোগে রাজস্ব বাজেট থেকে জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাস্ট ফান্ড (সিসিটিএফ) গঠন করা হয়। ট্রাস্ট ফান্ড থেকে জলবায়ু পরিবর্তন নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে অভিযোজন, প্রশমন ও গবেষণামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করা হচ্ছে।

সরকারের রাজস্ব বাজেট থেকে ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে শুরু করে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রায় তিন হাজার ২৬৪ কোটি ৪৩ লাখ ৫০ হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ৭২০টি (৬৫৯টি সরকারি এবং ৬১টি বেসরকারি) প্রকল্প গ্রহণ করা হয়েছে। প্রকল্পের মধ্যে ৩৭৫টি (সরকারি-৩১৮টি, বেসরকারি-৫৭টি ) প্রকল্প শেষ।  
 
এসময় পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন সচিব জিয়াউল হাসান, প্রকল্প পরিচালক মো. মোখতার আহমেদ বক্তব্য রাখেন।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩১ ঘণ্টা, মার্চ ১৫, ২০২০
এমআইএইচ/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa