ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

জলবায়ু ও পরিবেশ

‘ঘূর্ণিঝড়-বন্যা মোকাবিলায় আমরা বিশ্বের রোল মডেল’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪২৬ ঘণ্টা, মার্চ ৫, ২০২০
‘ঘূর্ণিঝড়-বন্যা মোকাবিলায় আমরা বিশ্বের রোল মডেল’ বক্তব্য রাখছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।

ঢাকা: ‘প্রাকৃতিক দুর্যোগ- ঘূর্ণিঝড় ও বন্যা মোকাবিলায় আমরা এখন বিশ্বের কাছে রোল মডেল’, মন্তব্য করেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।

বৃহস্পতিবার (০৫ মার্চ) দুপুরে রাজধানীর লালমাটিয়া উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় জাতীয় দুর্যোগ প্রস্তুতি দিবস উপলক্ষে ভূমিকম্প ও অগ্নিকাণ্ড বিষয়ক সচেতনতা বাড়ানোর মহড়া অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘গত বছর দু’টি বড় সাইক্লোন হয়েছিল।

এ সময় আমরা ১৮ লাখ এবং ২৩ লাখ মানুষকে নিরাপদে সাইক্লোন সেন্টারে নিয়ে আসতে সক্ষম হয়েছি। সাইক্লোন সেন্টারে আমরা তাদের খাবার ও নিরাপদ পানির ব্যবস্থা করেছি। ঘূর্ণিঝড় এবং বন্যা মোকাবিলায় বাংলাদেশ এখন সারা বিশ্বের কাছে রোল মডেল। ’

ভূমিকম্প প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘পর্যাক্রমে বাংলাদেশের প্রতিটি স্থাপনা জাপানের মতো ভূমিকম্প সহনশীল করে তৈরি করা হবে, যেন ভূমিকম্পে একটি মানুষেরও প্রাণহানি না হয়। এছাড়া যে বাড়িগুলো ভূমিকম্পের ঝুঁকিতে রয়েছে, সেগুলোও আমরা ভূমিকম্প সহনশীল করে গড়ে তুলবো। প্রতিটি দুর্যোগ মোকাবিলায় আমরা কাজ করে যাচ্ছি। ’

তিনি ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যদের প্রশংসা করে বলেন, ‘আমি স্যালুট জানাই ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যদের, যারা যেকোনো ধরনের দুর্যোগে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উদ্ধার কার্যক্রম পরিচালনা করেন। মানুষের জীবন রক্ষা করতে গিয়ে নিজেদের জীবন উৎসর্গ করেন তারা। ’

তিনি বলেন, ‘আমাদের হতাশ হওয়ার কিছু নেই, ভয় পাওয়ার দরকার নেই, আমাদের একটি সুদক্ষ ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বাহিনী রয়েছে। যারা যেকোনো দুর্যোগে উদ্ধার কার্যক্রমে ঝাঁপিয়ে পড়তে সদা প্রস্তুত রয়েছে। আমরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স বাহিনীকে আরও বেশি উন্নত করার জন্য ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকার যন্ত্রপাতি কেনার পরিকল্পনা নিয়েছি। ’

উদ্ধার কার্যক্রমের মহড়া। আলোচনা অনুষ্ঠানের আগে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা লালমাটিয়া বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ভূমিকম্পের উদ্ধার কার্যক্রমের মহড়া দেখান।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব শাহ কামাল, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ মহসিন, ফায়ার সার্ভিসের অপারেশন অ্যান্ড মেইনটেন্যান্স বিভাগের পরিচালক জিল্লুর রহমান, লালমাটিয়া গার্লস হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক কামরুজ্জামান, দুর্যোগ ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আকরাম হোসেন, সেভ দ্য চিলড্রেনের হিউম্যানিট্যারিয়ান সেক্টরের ডেপুটি ডিরেক্টর সৈয়দ মতিউল আহসান, লালমাটিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি বজলুর রহমান প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৪২৬ ঘণ্টা, মার্চ ০৫, ২০২০
আরকেআর/এফএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa