ঢাকা, বুধবার, ৮ শ্রাবণ ১৪৩১, ২৪ জুলাই ২০২৪, ১৭ মহররম ১৪৪৬

জলবায়ু ও পরিবেশ

বৃষ্টিহীন আষাঢ়ে খুলনায় দুর্বিষহ গরম

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৪১ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০২৪
বৃষ্টিহীন আষাঢ়ে খুলনায় দুর্বিষহ গরম

খুলনা: আষাঢ় মাসের দুই দিন অতিবাহিত হলেও বৃষ্টির দেখা নেই খুলনায়। আষাঢ় এলেও বর্ষার আগমনী বার্তা নেই।

বরং ভ্যাপসা গরম, রোদে প্রাণিকূল হাঁপিয়ে উঠছে। যা আবহাওয়া পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব বলে মনে করছেন আবহাওয়াবিদরা। ভোর কিংবা রাতেও গরমের তেজ কমছে না। এমনই দহন জ্বালায় জ্বলছে এ অঞ্চলের মানুষ।

ঘূর্ণিঝড় রিমালে পরবর্তী টানা তাপদাহে জনজীবন অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে। প্রচণ্ড গরমের সাধারণ ও কর্মজীবী মানুষের ভোগান্তি আর কষ্ট বেড়েছে। তবে সবচেয়ে বিপাকে পড়েছেন খেটেখাওয়া মানুষ। তীব্র রোদের কারণে দিনমজুর, রিকশাচালক ও ভ্যানচালকরা কাজ করতে পারছেন না। এদিকে কাজ না করলে খাবার জুটবে না। তাই পেটের তাড়নায় প্রচণ্ড তাপদাহ উপেক্ষা করে কাজে বেরিয়েছেন।

খেটেখাওয়া সব মানুষের শরীর থেকে সারাদিনই ঘাম ঝরছে। ঈদে বাড়ি ফেরা লোকেরা এই গরমে পরছেন চরম কষ্টে। ঘরে বাইরে কোথাও স্বস্তিতে থাকতে পারছেন না মানুষ। গরমে নাজেহাল নাগরিক জীবন। অতিরিক্ত গরমে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়ছেন। বিশেষ করে কোরবানির গরু নিয়ে হাটে আসা খামারি ও বেপারীরা।

এ প্রসঙ্গে নগরীর জোড়াকেট পশুর হাটে গরু নিয়ে আসা নড়াইলের কালিয়া উপজেলার খামারি মাহবুব মোল্লা বাংলানিউজকে বলেন, সাতটি গরু নিয়ে এসেছিলাম। ছোট ও মাঝারি দুইটি বিক্রি হয়ে গেছে। প্রচণ্ড গরম অসুস্থ হয়ে পড়েছি। এত গরমে হাটে টেকা যাচ্ছে না।

রোববার (১৬ জুন) খুলনা আবহাওয়া অফিসের সহকারী আবহাওয়াবিদ আমিরুল আজাদ বাংলানিউজকে বলেন, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বৃষ্টি হলেও খুলনায় বৃষ্টির দেখা মিলছে না। আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী, আজ অথবা আগামী সোমবার (১৭ জুন) বিকেলে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৪১ ঘণ্টা, জুন ১৬, ২০২৪
এমআরএম/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।