ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

ব্যাংকিং

বিমা কোম্পানির অডিটর নিয়োগ স্থগিত করবে না আইডিআরএ

মাহফুজুল ইসলাম, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩০, ২০১৭
বিমা কোম্পানির অডিটর নিয়োগ স্থগিত করবে না আইডিআরএ আইডিআরএ এর লোগো

ঢাকা: সাধারণ বিমা কোম্পানির বিশেষ নিরীক্ষক (অডিটর) নিয়োগ স্থগিত করবে না বিমা উন্নয়ন ও নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (আইডিআরএ)।

অডিটর নিয়োগের নির্দেশ না স্থগিত চেয়ে আইডিআরএ’র কাছে করা সাধারণ বিমা কোম্পানিগুলোর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আইডিআরএ সূত্র জানায়, নিরীক্ষা কার্যক্রম নির্দিষ্ট সময়ে শেষ করতে সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য নির্দেশ দিয়েছে আইডিআরএ।

যদি বিমা কোম্পানিগুলো বিশেষ নিরীক্ষককে অসহযোগিতা করে, তাহলে আইন অনুসারে কঠোর ব্যবস্থা নেবে। যা চলতি সপ্তাহের কোম্পানিগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালককে (এমডি) চিঠিতে জানানো হবে।

৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত অডিটর নিয়োগের নির্দেশ না স্থগিত চেয়ে আইডিআরএ’র কাছে ১৮টি বিমা কোম্পানির আবেদন করে।

কর্তৃপক্ষ ২৪টি সাধারণ বিমা কোম্পানিকে সর্বশেষ তিন বছরের (২০১৩, ২০১৪ এবং ২০১৫ সাল) অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা ব্যয়, বিনিয়োগ, ঋণ, অগ্রিম, স্থায়ী-অস্থায়ী সম্পদ, নগদ অর্থ, ভ্যাট-ট্যাক্স, চেয়ারম্যান-পরিচালকদের সম্মানী ও অন্যান্য সুবিধা এবং তার পর্যালোচনাসহ কোম্পানির আয়, ব্যয় ও সম্পদের বিষয়গুলোর অনিয়ম খতিয়ে দেখতে অডিটর নিয়োগ দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে। বিমা আইন-২০১০ এর ২৯ ধরার ক্ষমতা বলে এ নির্দেশ দেওয়া হয়।

আইডিআরএ সিদ্ধান্তে বলা হয়, আইডিআরএ কোম্পানির শেয়ারহোল্ডারসহ কোম্পানির বৃহত্তর স্বার্থে ২০১৩, ২০১৪ এবং ২০১৫ সালের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা ব্যয়ের প্রকৃত কারণ নির্ণয়সহ অন্যান্য অনিয়ম ও অসামঞ্জস্যতা অনুসন্ধান করতে বিশেষ নিরীক্ষক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে কোম্পানির প্রতিটি কার্যক্রম যদি বিমা আইনের বিধান যথাযথ অনুসরণ করা থাকে, তাহলে বিশেষ নিরীক্ষা কার্যক্রম কোম্পানির জন্য মোটেও সমস্যা সৃষ্টি করবে না। বরং বিশেষ নিরীক্ষা কার্যক্রমের মাধ্যমে কোম্পানির সঠিক চিত্র জানা সম্ভব হবে। যা কোম্পানিতে স্বচ্ছতা জবাবদিহিতা নিশ্চিত করবে।

বিমা আইন-২০১০ এর ২৯ বিধান অনুয়ায়ী, কোম্পানিতে নিয়োগকৃত বিশেষ নিরীক্ষককে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে নিরীক্ষা প্রতিবেদন কর্তৃপক্ষ বরাবর দাখিলের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এক্ষেত্রে বিশেষ নিরীক্ষা কার্যক্রম স্থগিত সংক্রান্ত আবেদনপত্র বিবেচনায় নেওয়ার আইনগত কোনো সুযোগ নেই। এ অবস্থায় বিমা আইনের বিধান যথাযথ পালনে নিরীক্ষা কার্যক্রম নির্দিষ্ট সময়ে সম্পন্ন করতে বিশেষ নিরীক্ষককে সার্বিক সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে।

অডিট কার্যক্রমে কর্তৃপক্ষ নিযুক্ত বিশেষ নিরীক্ষককে অসহযোগিতা করা হচ্ছে মর্মে অডিটের মাধ্যমে কোনো প্রকার অভিযোগ উত্থাপিত হলে কর্তৃপক্ষ বিমা আইন অনুযায়ী কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণে বাধ্য হবে।

আবেদনকৃত কোম্পানিগুলো হচ্ছে- গ্রিন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, এক্সপ্রেস, কন্টিনেন্টাল, ফিনিক্স, প্রগতি, ফেডারেল, ইসলামি ইন্স্যুরেন্স বাংলাদেশ, পাইওনিয়ার, বাংলাদেশ ন্যাশনাল, জনতা, নর্দান জেনারেল, তাকাফুল, সোনার বাংলা, পিপলস, মেঘনা এবং ইউনিয়ন ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি ইত্যাদি।

নিরীক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ২ মাসের মধ্যে তাদের নিরীক্ষা প্রতিবেদন আইডিআরএ’র কাছে জমা দিতে বলা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৩০, ২০১৭
এমএফআই/টিআই

 

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।