ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ শাবান ১৪৪৫

আওয়ামী লীগ

বিএনপিকে ভাঙার জন্য বিএনপিই যথেষ্ট

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৮
বিএনপিকে ভাঙার জন্য বিএনপিই যথেষ্ট বক্তব্য রাখছেন ওবায়দুল কাদের/ ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: গঠনতন্ত্রের সাত ধারা পরিবর্তনের মাধ্যমে বিএনপি যেভাবে অগণতান্ত্রিক পন্থাকে আঁকড়ে ধরেছে তাতে বিএনপিকে ভাঙ্গার জন্য বিএনপিই যথেষ্ট বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

সোমবার (২৯ জানুয়ারি) বিকেলে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে ‘নতুন সদস্য সংগ্রহ ও পুরনো সদস্যদের নবায়ন’ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, হামলা-মামলার ভয়ে বিএনপি তাদের গঠণতন্ত্র পরিবর্তন করেছে।

তাদের ইমানের জোর এতোই হালকা। পালকের মতো হালকা। এইভাবে নিজেই বিএনপি তাদের মুখোশ উন্মোচন করছে। তাই বিএনপিকে ভাঙার জন্য আওয়ামী লীগের প্রয়োজন নেই।

তিনি বলেন, বিএনপি তাদের গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করেছে। রাতের অন্ধকারে কোন কাউন্সিল ছাড়াই এক কলমের খোঁচায় তারা তা করেছে। এর মাধ্যমে তাদের গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা উধাও হয়ে গেছে। কী অদ্ভুত তাদের গঠনতন্ত্র! কী অদ্ভুত তাদের গণতন্ত্রের নমুনা! যেখানে এক বছর ১০ মাস অতিবাহিত হলেও তারা একবারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক করতে পারেনি, সেখানে তারা নির্বাচন কমিশনে একটি প্রতিনিধি দল পাঠিয়ে অদ্ভুত প্রক্রিয়ায় গঠনতন্ত্র পরিবর্তন হয়ে গেলো!

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি’র গঠনতন্ত্রের ৭ ধারার (ক) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কোন সাংবিধানিক প্রক্রিয়ায় রাষ্ট্র দ্বারা দণ্ডিত কোনো ব্যক্তি দলের সদস্য হতে পারবেন না। (খ) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কেউ যদি দেউলিয়া হয় তবে সে দলের সদস্য হতে পারবেন না। (গ) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কেউ যদি উন্মাদ হন তবে সে দলের সদস্য হতে পারবে না। (ঘ) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কেউ যদি সামাজিকভাবে সন্ত্রাসী বা কুখ্যাত বলে পরিগণিত হন, সে দলের সদস্য হতে পারবেন না। এখন গঠণতন্ত্র সংশোধনের মাধ্যমে এই ৭ ধারা বাদ দেওয়ার ফলে সকল দণ্ডিত, দেউলিয়া, উন্মাদ ও কুখ্যাত সন্ত্রাসী বিএনপি’র সদস্য হতে পারবে। এখন বিএনপিকে চিনে নিন। এই হলো বিএনপি। এই হলো তাদের গণতন্ত্র ও গঠণতন্ত্র।

বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে এখন আদালতের বিরুদ্ধে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। আদালতের বিরুদ্ধে যাচ্ছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আমরা তো খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করিনি। মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। আমরা তো খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি করছি না। অথচ আদালতের রায় তাদের বিরুদ্ধে গেলে তারা তা মানবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছে। সরকরার কি মামলা করেছে? তবু তারা সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। আমরা বলেছি, খালেদা জিয়ার রায় কী হবে তা আদালতই জানে। আদালত সম্পূর্ণ স্বাধীন।

ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন দলের প্রচার সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত, সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মোর্শেদ কামাল প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৯০১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৯, ২০১৮
আরএম/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।