ঢাকা, বুধবার, ৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২২ মে ২০২৪, ১৩ জিলকদ ১৪৪৫

আওয়ামী লীগ

বেনাপোলে বোমা-অস্ত্রসহ আ’লীগের ৩ কর্মী আটক

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ৬, ২০১৮
বেনাপোলে বোমা-অস্ত্রসহ আ’লীগের ৩ কর্মী আটক বিজিবির হাতে বোমা ও ধারালো অস্ত্রসহ আটক আওয়ামী লীগের ৩ কর্মী

বেনাপোল (যশোর): বন্দরনগরী বেনাপোল থেকে ১৪টি তাজা হাতবোমা, ৪টি রামদা ও ৪টি রডসহ আওয়ামী লীগের তিন কর্মীকে আটক করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সদস্যরা। তবে আওয়ামী লীগ নেতাদের দাবি দলীয় ভাবমূর্তি নষ্ট করতে কেউ ষড়যন্ত্র করছে।

শনিবার (৬ জানুয়ারি) দুপুর ২টায় বেনাপোলের ছোটআঁচড়া মোড়ের বিপরীতে আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যলয়ের পেছনে বালিগাদা থেকে এসব বিস্ফোরক দ্রব ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার হয়।

আটকরা হলেন- বেনাপোল পৌরসভার ভবারবেড় গ্রামের শাহাজানের ছেলে মধু (২৬), গোলম খবীরের ছেলে ইরশাদ (২৬) ও আব্বাস আলীর ছেলে রনি (২৫)।

বেনাপোল সদর বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার শহিদুল ইসলাম শহিদ বাংলানিউজকে বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায় নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডর উদ্দেশে বেনাপোল আওয়ামী লীগের দলীয় কার্যলয়ের পাশে ধারালো অস্ত্র ও বোমা নিয়ে দুর্বৃত্তরা অবস্থান করছে। পরে অভিযান চালিয়ে সেখান থেকে হাতবোমা ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। এ সময় বোমার পাহারাদার তিন জনকে আটক করা হয়েছে।

এদিকে আটকরা দাবি করেন, তারা দলীয় অফিসে বসে ছিলেন। এ সময় বোমা উদ্ধারের বিষয়ে সহযোগিতা করতে ক্যাম্পে উপস্থিত হতে বলেন বিজিবি সদস্যরা। পরে সেখানে গেলে তাদের আসামি করে হাতে হ্যান্ডক্যাপ লাগিয়ে দেওয়া হয়।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান বাংলানিউজকে বলেন, দলীয় ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্য এটা একটি পক্ষের ষড়যন্ত্র।

উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ওহিদুল ইসলাম ওহিদ বাংলানিউজকে বলেন, রাজনৈতিকভাবে হয়রানি করার জন্য এটি কারো চক্রান্ত। তবে সাক্ষীর নামে তাদের কর্মীদের ডেকে নিয়ে আসামি বানানোর নিন্দা জানান তিনি।  

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০৬, ২০১৮
এজেডএইচ/জিপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।