ঢাকা, রবিবার, ১ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

কৃষি

প্রথমবারের মতো খুলনা থেকে সবজি যাচ্ছে ইউরোপে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৩ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২১
প্রথমবারের মতো খুলনা থেকে সবজি যাচ্ছে ইউরোপে প্রথমবারের মতো খুলনা থেকে সবজি যাচ্ছে ইউরোপে। ছবি: বাংলানিউজ

খুলনা: প্রথমবারের মতো বাণিজ্যিকভাবে খুলনা থেকে ইতালি ও ইংল্যান্ডে সবজি রপ্তানি শুরু হয়েছে।

শুক্রবার (২১ মে) জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার ভিলেজ সুপার মার্কেট থেকে পেঁপে, পটোল, কচুর লতি ও কাঁচা কলা পাঠানো হয়েছে।

ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. মোছাদ্দেক হোসেন বাংলানিউজকে বলেন, খুলনা থেকে প্রথমবারের মতো সবজি যাচ্ছে ইউরোপে। শস্যভাণ্ডার খ্যাত ডুমুরিয়ার সবজি রপ্তানিকারকদের নির্দেশনা অনুযায়ী প্রক্রিয়াজাত করার পর রপ্তানি করা হয়েছে। ভিলেজ সুপার মার্কেট থেকে ট্রাকে করে এক মেট্রিক টন সবজি প্রথমে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে প্লেনে সরাসরি ইতালিতে যাবে। প্রথম চালানটি ইতালিতে যাচ্ছে। পরে ইউরোপের অন্যান্য দেশেও যাবে।

তিনি জানান, সবজি রপ্তানিতে সার্বিক সহযোগিতা করছে ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। আর আর্থিক সহায়তা দিচ্ছে সফল নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান।

জানা গেছে, এনএইচবি করপোরেশন ও আরআর এন্টারপ্রাইজ নামের দুটি রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান এসব সবজি রপ্তানি করছে। এনআইচবি করপোরেশন ইতালি এবং আরআর এন্টারপ্রাইজ ইংল্যান্ডে সবজি রপ্তানি করবে। সফল প্রকল্পের আওতায় খুলনা ও যশোরে প্রায় দেড় লাখ কৃষক নিরাপদ সবজি উৎপাদন করছেন। সেই সবজি প্রক্রিয়াকরণের জন্য ডাচ সরকারের আর্থিক সহায়তায় ডুমুরিয়ায় ভিলেজ সুপার মার্কেট প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। আর আর্থিক ও কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে 'সলিডারিডাড নেটওয়ার্ক এশিয়া' নামের একটি আন্তর্জাতিক সংস্থা। ওই সংস্থার 'সফল' নামের একটি প্রকল্পের আওতায় কৃষকদের নিরাপদ খাদ্য উৎপাদন বিষয়ে প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ দেওয়া হয়। মূলত 'সফল' প্রকল্পের আওতাভুক্ত কৃষকদের কাছ থেকেই সবজিগুলো নেওয়া হয়েছে।  

বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থার সহযোগিতায় খুলনার ডুমুরিয়ায় ১০ কোটি টাকা ব্যয়ে ২০১৮ সালে চালু করা হয় অত্যাধুনিক ভিলেজ মার্কেট। এলাকার তৃণমূল কৃষকদের কাছ থেকে ন্যায্য মূল্যে সরাসরি কৃষিপণ্য কেনা হয় এখানে। সেখান থেকে এ বছর ১২০ মেট্রিক টন সবজি রপ্তানির লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। তার অংশ হিসেবে শস্যভাণ্ডার খ্যাত ডুমুরিয়ার উৎপাদিত তরতাজা শাক-সবজির প্রথম চালান শুক্রবার পাঠানো হলো।

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, ডুমুরিয়ার বিষমুক্ত সবজি এ অঞ্চলের চাহিদা মিটিয়ে বিদেশে রপ্তানির সুযোগ পাওয়ায় কৃষকরা লাভবান হবেন। খুলনা অঞ্চলের কৃষি অর্থনীতিতে যুগান্তকারী পরিবর্তন আসবে। কৃষি অর্থনীতির ব্যাপক সমৃদ্ধি ঘটবে।

এদিকে শুক্রবার (২১ মে) দুপুরে উপজেলার টিপনা ভিলেজ সুপার মার্কেটে বিদেশে প্রথম সবজি রপ্তানি কার্যক্রমের আনুষ্ঠানিকভাবে শুভ উদ্বোধন করা হয়।

সাসটেইনেবল এগ্রিকালচার ফুড সিকিউরিটি এ্যান্ড লিংকেজেস (সফল-২) নিরাপদ ও বালাই মুক্ত সবজি রপ্তানি কার্যক্রমের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. আব্দুল ওয়াদুদ। প্রধান অতিথি হিসেবে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বিদেশে সবজি রপ্তানি কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন খুলনা জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মো. হাফিজুর রহমান, উপজেলা কৃষি অফিসার মো. মোসাদ্দেক হোসেন ও খুলনার কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক এস এম মাহাবুব আলম। বক্তব্য রাখেন প্রথম আলোর নিজস্ব প্রতিবেদক শেখ আল এহসান, টিপনা ভিলেজ সুপার মার্কেটের সভাপতি শেখ হেফজুর রহমান, কৃষি বিপণন অধিদপ্তরের কো-অর্ডিনেটর সুমাইয়া খাতুন, সলিডারিডাড নেটওয়ার্ক এশিয়া খুলনার প্রোগ্রাম ম্যানেজার সুরাইয়া খাতুন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৩ ঘণ্টা, মে ২১, ২০২১
এমআরএম/কেএআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa