ঢাকা, মঙ্গলবার, ১২ আশ্বিন ১৪২৮, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯ সফর ১৪৪৩

প্রবাসে বাংলাদেশ

ব্রিটেনের রোজনামচা: পর্ব-৩

ব্রিটেনে ১৭ বছরে বেকারের সংখ্যা সর্বোচ্চ

সৈয়দ শাহ সেলিম আহমেদ, ইংল্যান্ড থেকে | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১০ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৮, ২০১২
ব্রিটেনে ১৭ বছরে বেকারের সংখ্যা সর্বোচ্চ

গত বছর রায়ট চলাকালীন বার্মিংহামে একই পরিবারের দু’ সহোদর নিজ এলাকাকে রায়টমুক্ত রাখতে গিয়ে নিহত হয়েছিলেন, সাথে তাদের বন্ধুকেও জীবন দিতে হয়েছিলো দুষ্কৃতকারীদের হাতে। তাদের নাম  হল- যথাক্রমে শাহজাদ (৩০), তার ভাই আবদুল(৩১) এবং বন্ধু হারুন জাহান(২১)।



মরহুম শাহজাদের  পত্নী ওই সময় সন্তান সম্ভবা ছিলেন, সম্প্রতি শাহজাদের স্ত্রী খানছা আলী(২২)এক পুত্র সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। শাহজাদের অকাল মৃত্যুতে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করতে গিয়ে খানছা আলী বলেন, ‘প্রতিদিনই আমি খুব আহত হই এই ভেবে যে কীভাবে আমার স্বামী এবং তার ভাই ও বন্ধুকে নির্দয়ভাবে হত্যা করা হয়েছে। ’ শাহজাদের মা রোকেয়া বেগম কান্নাজড়িত কণ্ঠে জানান, নিজ সন্তান শাহজাদ ও আবদুলের স্মৃতি নিয়ে বড় কষ্টের সঙ্গে বেঁচে আছেন তিনি।

এই ঘটনায় পুলিশ ৮ জনকে চার্জ করেছে যার মধ্যে পাঁচ জন জামিনে আছে।

ফাবিও কাপেলোর স্থলাভিষিক্ত হবেন রেডনাপ!
গত ৮ ফেব্রুয়ারি ২০১২ কর্তৃপক্ষ ইংল্যান্ড টিমের ক্যাপ্টেইন জন টেরিকে বরখাস্ত করে। এ ঘটনাকে জের ধরে টিম ম্যানেজার ফাবিও কাপেলো পদত্যাগ করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে, টোটেনহাম বস হ্যারি রেডনাপ ফাবিওর স্থলাভিষিক্ত হবেন।

ব্রিটেনে বেকারের সংখ্যা ১৭ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ-

১৯৯৫ সালের পর ব্রিটেনে বেকার লোকের সংখ্যা ২.৬৭ মিলিয়নে পৌঁছেছে, যা গত ১৭ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ বলে জানা গেছে। গত ডিসেম্বর থেকে বেকার লোকদের সংখ্যা বাড়তে থাকে, যা আরো বেড়ে গত তিন মাসে ৪৮,০০০ ছাড়িয়ে যায়। জবসিকার অ্যালাউন্স ক্লেইমের সংখ্যা গত জানুয়ারি থেকে ৬৯,০০০ বেড়ে ১.৬ মিলিয়নে দাঁড়ায়।

ব্রিটেনের বাজারে বাংলাদেশি প্রিয় মোবাইল লঞ্চিং-

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১২ লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকায় বেশ জাঁক-জমক পূর্ণভাবে বাংলাদেশি মোবাইল সিমকার্ড প্রিয় মোবাইল তাদের সার্ভিস শুরুর ঘোষণা দিয়ে বেশ আকর্ষণীয় প্যাকেজ ছেড়েছে। ব্রিটেনের টি-মোবাইল এবং অরেঞ্জ মোবাইলের যৌথ সহায়তায় প্রিয় মোবাইল তার কার্যক্রম চালাবে। এখন থেকে যে কেউ প্রতি শুক্রবার প্রিয় মোবাইল দিয়ে বাংলাদেশে ফ্রি কথা বলতে পারবেন বলে অন্যতম পরিচালক ফায়সাল আহমেদ জানিয়েছেন। তাছাড়া সাধারণ নিয়মে বাংলাদেশে মোবাইলে ২ পেন্স এবং ল্যান্ড লাইনে ৫ পেন্স চার্জ করা হবে বলে জনানো হয়েছে।

রচডেইল বাংলাদেশি অ্যাসোসিয়েশন বিএসিপির নির্বাচন সম্পন্ন-

গত ২৯ জানুয়ারি রচডেইল বাংলাদেশি অ্যাসোসিয়েশন বিএসিপি প্রজেক্ট-এর দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন বেশ জমকালো ও উৎসবমুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়।
নির্বাচনে বিপুল ভোটে যারা নির্বাচিত হয়েছেন, তারা হলেন- সুহেল আহমদ, সৈয়দ জানু মিয়া, শেখ মো. খায়রুল আলম, শেখ মো. আছাব আলী, ইব্রাহিম মিয়া, হিবুর রহমান, সায়ফুল ইসলাম সিদ্দিক, আওলাদ আলী প্রমুখ।

বার্মিংহামে যুবদলের প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত-

তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা পুনর্বহাল, সারাদেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের ওপর সরকারের দমন-পীড়ন, বিএনপির মিছিলে গুলি ও তাদের পাঁচ নেতাকর্মী হত্যার প্রতিবাদে গত ৩১ জানুয়ারি স্থানীয় সিক্সওয়ে বিজনেস সেন্টারে যুবদল বার্মিংহাম শাখার উদ্যোগে এক প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সংগঠনের সভাপতি গুলজার আহমদ ফয়সলের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক রাসেল আহমদের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্য যুবদলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল বাসিত বাদশা।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাবেক কাউন্সিলর আবদুল খালিক, হরমুজ আলী, আব্জার হোসেন, আকবর আলী, কয়সর আলী শাহীন, বুরহান উদ্দীন, খালিছ মিয়াসহ আরো অনেকে।

যুদ্ধাপরাধীদের বিরুদ্ধে জনমত গড়তে স্মারকলিপি প্রদান-

মানবতা বিরোধী ও যুদ্ধাপরাধীদের বিচার ত্বরান্বিত করা, এর পক্ষে আন্তর্জাতিক জনমত গড়ে তোলা এবং ব্রিটেন থেকে এর বিচারের বিরুদ্ধে প্রচার-প্রপাগান্ডা ঠেকাতে ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১২ শুক্রবার সান্ডারল্যান্ড আওয়ামী লীগের উদ্যোগে স্থানীয় লেবার দলীয় এমপি মিস জুলি এলিয়েটের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপি প্রদান করেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ সেক্রেটারি জিয়াউল ইসলাম, সহ-সভাপতি শাহীন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ওমর মেহেদী রুনু। এমপি জুলি এলিয়েটের পক্ষে তার সেক্রেটারি স্মারকলিপি গ্রহণ করে যথাযথ কর্তৃপক্ষের নজরে আনবেন বলে নেতাবৃন্দকে আশ্বস্ত করেন।

ক্যামেরন-আলেক্স সালমন্ড বৈঠক সমঝোতা ছাড়াই শেষ-

সম্প্রতি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী স্কটল্যান্ড সফরে যান। এ সময় স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতার প্রসঙ্গটি আবারো সামনে চলে আসে। ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি সফরে এসে স্কটল্যান্ডের ফার্স্ট সেক্রেটারি আলেক্স সালমন্ড-এর সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠকে মিলিত হন। স্কটল্যান্ড স্বাধীনতা প্রসঙ্গে দু’ নেতার বৈঠক কোনো সমঝোতা ছাড়াই শেষ হওয়াতে সালমন্ড বেশ হতাশা ব্যক্ত করেন।

ডেভিড ক্যামেরন এ প্রসঙ্গে বলেন, তিনি একীভূত ব্রিটিশ ইউনিয়নের পক্ষে তার লড়াই চালিয়ে যাওয়ার জন্য যা কিছু করার তাই করবেন। সে জন্য তিনি রেফারেন্ডামের পক্ষে। তিনি আরো বলেন, প্রস্তাবিত ২০১৪ সালের রেফারেন্ডামে যদি দেখা যায়, অধিকাংশ জনগণ এর পক্ষে, সে অবস্থায় স্কটল্যান্ডকে আর কিভাবে, আরো কতটুকু অধিক ক্ষমতা দেওয়া যায়, তা তিনি ভেবে দেখবেন।  
 

[email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৩ ঘণ্টা, ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১২

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa