ঢাকা, বুধবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১১ সফর ১৪৪২

প্রবাসে বাংলাদেশ

সিডনিতে সপ্তমীর মহা আয়োজন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০৭ ঘণ্টা, অক্টোবর ৬, ২০১৯
সিডনিতে সপ্তমীর মহা আয়োজন অস্ট্রেলিয়ায় দুর্গোৎসব। ছবি: বাংলানিউজ

বঙ্গ পরিবারের দুর্গোৎসব সিডনিবাসীর কাছে আর অজানা নয়। শুধু সিডনিবাসী নয়, অস্ট্রেলিয়ার অন্য শহরের বাঙালি সমাজেও দুর্গা পূজা ঘিরে শুরু হয়েছে মহা সমারোহ। 

যথারীতি ধর্মীয় নিয়ম মেনে আজ সম্পন্ন হলো সপ্তমী। বিধান অনুসারে সিডনির বিভিন্ন মণ্ডপে অনুষ্ঠিত হয় বিহিত পূজা।

সপ্তমীতে ষোড়শাচারে অর্থাৎ ষোলটি উপাদানে দেবীর পূজা হয়। উৎসবের এ দিন সকালে ত্রিনয়নী দেবী দুর্গার চক্ষুদান করা হয়। সকালে দেবীকে আসন, বস্ত্র, নৈবেদ্য, স্নানীয়, পুষ্পমাল্য, চন্দন, ধূপ ও দীপ দিয়ে ভক্তরা অর্চণা করেন।

একশো আট প্রকার দ্রব্য ও নব পত্রিকা স্নানান্তে দেবীকে আসনে প্রতিষ্ঠিত করা হয়। স্থাপন ও সপ্তাদি কল্পারম্ভ, দেবীর পায়ে ভক্তদের অঞ্জলি প্রদানসহ নানা আয়োজনে সপ্তমী পূজা উদযাপিত হয়।

বাংলাদেশ সোসাইটি ফর পূজা অ্যান্ড কালচার আয়োজিত আজকের পূজা অনুষ্ঠিত হয় ওয়েন্টওয়ার্থভিলের রেডগাম সেন্টারে। এখানকার পূজা  উপলক্ষে অগণিত দর্শনার্থীদের উপস্থিতি দেখা যায়। তাদের শুভেচ্ছা জানাতে ক্যানবেরাস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রতিনিধি কনসাল জেনারেল মাসুদুল আলম ছুটে আসেন। তিনি বলেন, অস্ট্রেলিয়ায় যেভাবে বাঙালি ঐতিহ্য ও সংস্কৃতি  ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে তাতে বাংলাদেশ সরকারের সমর্থন রয়েছে এবং বাংলাদেশ হাইকমিশন ক্যানবেরার মাধ্যমে এ সমর্থন ও সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।  

আরও শুভেচ্ছা জানান কাম্বারল্যান্ড কাউন্সিলের কাউন্সিলর সুমন সাহা ও লিজা লি। তারা জানান, কালচারাল ডাইভারসিটি সুপ্রতিষ্ঠিত করতে অস্ট্রেলিয়া সরকারের পক্ষ থেকে তারা সর্বাত্মক চেষ্টা করবেন।

বঙ্গবন্ধু কাউন্সিল অস্ট্রেলিয়ার সভাপতি শেখ শামীম সবার সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করে বলেন, জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে অস্ট্রেলিয়া প্রবাসী বাঙালিদের মধ্যে সম্প্রীতির বন্ধন রয়েছে এবং এবারের দুর্গোৎসবের মধ্য দিয়ে আরও একবার তা সুপ্রতিষ্ঠিত হলো।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৫ ঘণ্টা, অক্টোবর ০৫, ২০১৯
এইচএডি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa