bangla news

ওসাকায় বঙ্গবন্ধুর শাহাদতবার্ষিকী ও শোকদিবস পালন

প্রবাসে বাংলাদেশ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৮-১৮ ৫:৫৬:৪৬ পিএম
ওসাকা শহরের ইকুনো কিউমিন সেন্টার মিলনায়তনে অনুষ্ঠান শেষে আয়োজক-আগতদের ফটোসেশন। ছবি: বাংলানিউজ

ওসাকা শহরের ইকুনো কিউমিন সেন্টার মিলনায়তনে অনুষ্ঠান শেষে আয়োজক-আগতদের ফটোসেশন। ছবি: বাংলানিউজ

জাপানের কানসাই অঞ্চলে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোকদিবস পালন করেছে স্থানীয় আওয়ামী লীগ।

এ উপলক্ষে রোববার (১৮ আগস্ট) দুপুরে ওই অঞ্চলের ওসাকা শহরের ইকুনো কিউমিন সেন্টার মিলনায়তনে এক আলোচনাসভা ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

কানসাই আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক আবু সাদাত মো. সায়েমের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব হারুন অর রশিদের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ থেকে স্কাইপের মাধ্যমে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া। 

অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় সংগীত পরিবেশন এবং পবিত্র কুরআন তেলাওয়াত ও গীতা পাঠ করা হয়। এরপর ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের নিহত সদস্যদের স্মরণে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। 

তানিয়া তাবাসসুম নিসার উপস্থাপনায় আলোচনাসভায় বক্তারা বলেন, ‘মুক্তিযুদ্ধের পরাজিত শক্তি পরিকল্পিতভাবে ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে। এটা ছিল ইতিহাসের জঘন্যতম হত্যাকাণ্ড। ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে হত্যা করতে চেয়েছিল। কিন্তু তারা সফল হয়নি।’ 

তারা আরও বলেন, ‘জাতির পিতার আদর্শ নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ বিনির্মাণে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।’

আবু সাদাত মো. সায়েম বলেন, ‘বাংলাদেশের গৌরব, ইতিহাস ও ঐতিহ্যের সাক্ষী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করার জন্য বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনাকে বারবার হত্যচেষ্টা করা হয়েছে তারপরও তিনি বিচলিত না হয়ে দেশের মানুষের পাশে থেকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।’

সভা চলাকালে তিন ধাপে ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্টের প্রেক্ষাপট এবং ঘটনাপ্রবাহের ওপর একটি বিশেষ প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়। 

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাপান ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক ফখরুল ইসলাম দিদার, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ (স্বাচিপ) জাপানের যুগ্ম-আহ্বায়ক ডা. ওমর ফারুক, কানসাই আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহবায়ক ও স্বাচিপ জাপানের সদস্য সচিব ডা. মারুফ হক খান, কানসাই আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহবায়ক মাহফুজুল করিম, ডা. সালমান মাহমুদ সিদ্দিকী, কানসাই আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আমিনুর রহমান, আশরাফ মহাম্মদ এবং ওসাকা ইউনিভার্সিটির পিএইচডি গবেষক এস এম নাদিম মাহমুদ।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কানসাই আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মাসুদ-উল-হাসান, ড. অসীম কুমার সাহা, হারুন আর রশিদ, জসিম উদ্দিন, যুগ্ম-আহবায়ক ডা. মিঠুন কুমার সাহা, সদস্য উৎপল মল্লিক, ড. জুবায়ের হাসান, শামিমুল আজাদ, ড. লুতফর রহমান মাসুম, ডা. প্রিয়াঙ্কা নাগ, ড. বজলুল করিম প্রমুখ।

আলোচনাসভা শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার পরিবারের সব সদস্যের আত্মার মাগফেরাত কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৫৩ ঘণ্টা, আগস্ট ১৮, ২০১৯
এইচএ/

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

প্রবাসে বাংলাদেশ বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-08-18 17:56:46