ঢাকা, শুক্রবার, ২২ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৭ আগস্ট ২০২০, ১৬ জিলহজ ১৪৪১

মালয়েশিয়া

মালয়েশিয়ায় মিনি বাংলাদেশ ‘বাংলা পাসার’

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৫৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৮
মালয়েশিয়ায় মিনি বাংলাদেশ ‘বাংলা পাসার’ বাংলা পাসার বাজারে বাংলাদেশিরা। ছবি: বাংলানিউজ

কুয়ালালামপুর (মালয়েশিয়া) থেকে ফিরে: মালয়েশিয়ায় রয়েছে অারেক ‘মিনি বাংলাদেশ’। মালয়েশিয়া জুড়ে বাংলাদেশিরা থাকলেও দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে অদূরে গড়ে উঠেছে ‘বাংলা পাসার’। মালয় ভাষায় পাসার অর্থ বাজার। বাংলাদেশিরা এই বাজার গড়ে তুলেছেন বলে এই বাজারের নামকরণ করা হয়েছে ‘বাংলা পাসার’। 

স্থানীয় প্রবাসীরা জানিয়েছেন, দেশটির সেলাঙ্গ জেলার চুইঙ্গা বুলু থানায় এ বাজার গড়ে উঠেছে। বাঙালিরা এ বাজার গড়ে তুললেও এখানে শুধু বাংলাদেশিরা ব্যবসা করেন না, মালয়, থাই, চায়নিজসহ অন্য দেশের ব্যবসায়ীরাও রয়েছেন।

ক্রেতাও শুধু বাঙালি নয়, ভিন্ন দেশেরও রয়েছেন।  

প্রবাসী বাংলাদেশিরা জানান, ১৯৯৬ সালের ১৫ অাগস্ট দেশটির তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ড. মাহাথির মোহাম্মদ যখন অবৈধ বিদেশিদের সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করে বৈধ করার সুযোগ দেন, তখন থেকেই ওই এলাকায় বসবাস শুরু করেন বাংলাদেশিরা।  

ফেনী জেলার প্রবাসী মো. ইয়াকুব অালী বলেন, ১৯৯৬ সালের শেষের দিকে বাজারটি গড়ে ওঠে। ৯৬ সালে যখন এই এলাকায় অামরা অাসি, তখন শুধু জঙ্গল অার কিছু খামার ছিল। মানুষের বসতি ছিল না। এখন এই এলাকায় প্রচুর শিল্প কারখানা গড়ে উঠেছে।  

তিনি আরও বলেন, কয়েকজন বাংলাদেশি মিলে বাজারটি গড়ে তোলার পর থেকে কিছু বাঙালি পণ্য-সামগ্রী নিয়ে রাস্তায় বসে বিক্রি করতেন। কিন্তু এখন বাজারটি অনেক বড় হয়ে গেছে।  

বাংলা পাসার বাজারে খাবারের দোকানে ক্রেতা।  ছবি: বাংলানিউজবাংলা পাসারে গিয়ে দেখা যায়, বাংলাদেশিরা ইমিটেশন সামগ্রীসহ বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজিয়ে বসেছেন। কেউ অালু, সবজি ও মাছ বিক্রি করছেন। সেই বাজারে মালয়েশিয়ান হরেক রকমের খাবার নিয়ে বসেছেন হু মাও সি। তিনি বাংলানিউজকে বলেন, বাজারটি বাংলাদেশিরা গড়ে তুললেও এখানে সব দেশের লোকজনই অাসেন।  

প্রবাসীরা জানান, প্রতিদিন বাজার বসলেও প্রতি রোববার সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় সেদিন সব বাংলাদেশিরা বাজারে আসেন।  

প্রবাসী ব্যবসায়ী অাব্বাস অালী বলেন, ৩ মাস ধরে বাজারে ব্যবসা করছি। বেচাকেনা ভালো। একই কথা জানালেন অারেক প্রবাসী মো. মোমেন।  
তিনি বাংলানিউজকে বলেন, প্রতি রোববার অামরা এখানে মিলিত হই। বাজারটি বাংলা নামে হওয়ায় প্রবাসের মাটিতে ভালোই লাগে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ২২, ২০১৮
টিএম/আরএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa