ঢাকা, সোমবার, ১০ আষাঢ় ১৪৩১, ২৪ জুন ২০২৪, ১৬ জিলহজ ১৪৪৫

প্রবাসে বাংলাদেশ

জার্মানিতে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বুদ্ধপূর্ণিমা উদ্‌যাপিত

অতিথি করেসপন্ডেন্ট, জার্মানি | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১২০ ঘণ্টা, মে ২৭, ২০২৪
জার্মানিতে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বুদ্ধপূর্ণিমা উদ্‌যাপিত

জার্মানি থেকে: জার্মানিতে নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে উদ্‌যাপিত হয়েছে বৌদ্ধ সম্প্রদায়ের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শুভ বুদ্ধপূর্ণিমা বা বৈশাখী পূর্ণিমা।

এ উপলক্ষ্যে রোববার (২৬ মে) সকাল থেকেই রাজধানী বার্লিনের সবচেয়ে প্রাচীন বৌদ্ধ বিহার ডাস বুড্ডিস্টিজে হাউজসহ অন্যান্য বিহারে ছিল ভিক্ষুদের পিন্ডাচরণ, শীলগ্রহণ, ভিক্ষুসংঘের উদ্দেশ্যে দান, সমাধি অনুশীলন, ধর্মদেশনা, বিশ্ব শান্তির জন্য সমবেত প্রার্থনা ও সুত্তপাঠ ও বুদ্ধের নানা দিক নিয়ে আলোচনা।

জানা যায়, আড়াই হাজারের বেশি সময় আগে বর্তমান নেপালের লুম্বিনী কাননে বৌদ্ধ ধর্মের প্রবর্তক গৌতম সম্যক সম্বুদ্ধের জন্ম গ্রহণ করেন, তার বাবার নাম ছিল রাজা শুদ্ধোদন ও মাতা ছিলেন মায়াদেবী। ৩৫ বছর বয়সে গয়ার বোধিবৃক্ষ মূলে পরম সত্য বোধিজ্ঞান লাভের পর দীর্ঘ ৪৫ বছর তিনি জগৎ ও মানবের কল্যাণে ধর্ম প্রচার শেষে ৮০ বছর বয়সে ভারতের উত্তর প্রদেশের কুশিনারায় মহাপরিনির্বাণ প্রাপ্ত হন। তথাগত ভগবান বুদ্ধ দিয়েছিলেন সব দুঃখ, তৃঞ্চাকে ক্ষয় করে পরম সুখ ও শান্তির সোপান নির্বাণ পথের সন্ধান।  

বৌদ্ধদের তাৎপর্যপূর্ণ এই দিনটিতে শ্রীলঙ্কাসহ স্থানীয় জার্মানদের সঙ্গে প্রবাসী বাংলাদেশি বৌদ্ধদের উপস্থিতি ছিল অন্যবারের তুলনায় অনেক বেশি। এ সময় সবার মঙ্গল কামনায় মৈত্রীময় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন, অনামিকা বড়ুয়া,  সুস্মিতা বড়ুয়া, যিশু বড়ুয়া, অভিজিৎ বড়ুয়া, অর্ণিষা বড়ুয়া, অনি, অর্ণব প্রমুখ।  

এ সময় বিশ্বে বিরাজমান সব যুদ্ধ-সংঘাত, অশান্তি আর হিংসা-হানাহানি থেকে জগতের মঙ্গল কামনায় এবং বাংলাদেশসহ বিশ্ব শান্তি কামনায় সমবেত প্রার্থনা ও প্রদীপ প্রজ্বলনসহ ভাবনা অনুশীলন হয়।

বাংলাদেশ সময়: ০১২০ ঘণ্টা, মে ২৭, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।