ঢাকা, রবিবার, ৯ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জানুয়ারি ২০২২, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

রূপপুর প্রকল্প বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান বদলে দেবে

উপজেলা করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১০ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২১
রূপপুর প্রকল্প বিশ্বে বাংলাদেশের অবস্থান বদলে দেবে

পাবনা (ঈশ্বরদী): বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ড. ইয়াফেস ওসমান বলেছেন, রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে বিশ্বের কাছে বাংলাদেশের মর্যাদা বেড়ে যাবে, বদলে যাবে বিশ্বে আমাদের দেশের অবস্থান।  

তিনি বলেন, আমাদের যাত্রা মধ্য গগনে।

তা পূর্ণ করতে হবে। যেদিন আমরা বিদ্যুৎ কেন্দ্র চালাতে পারব, সেদিন থেকে রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের কারণে বাংলাদেশ একটা অনন্য মর্যাদায় গিয়ে পৃথিবীর সামনে দাঁড়াবে।

মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) ঈশ্বরদী রূপপুর বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভেতরে নিউক্লিয়ার ডে-২০২১ উদযাপন উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।  

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ড. ইয়াফেস ওসমান বলেন, আমরা অলসতা বাদ দিয়ে যেভাবে কাজ করছি, আমরা এগিয়ে যাব। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্প কেবলমাত্র একটি বেশি দামের প্রকল্প না, রূপপুর প্রকল্প নির্মিত হলে বাংলাদেশ একটি ভিন্ন মর্যাদায় উঠে যাবে, এ ধরনের উন্নত টেকনোলজি নিয়ে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ তৈরি করতে পারে। এ কারণে সারা পৃথিবীতে বাঙালির অবস্থান বদলে যাবে।  

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চেয়েছিলেন, এ প্রকল্প এখানে হোক। পিতা থেকে কন্যার হাতে এসে এ প্রকল্প সমাপ্ত করতে পারব। স্বাধীনতা পেয়েছি বলেই আজ নিজেরা নিজেদের চেষ্টায় সারা পৃথিবীর কাছে নিজেদের স্থান করে নিতে পেরেছি। বাংলাদেশ ৩৩তম দেশ, যারা নিউক্লিয়ার নিয়ে বিদ্যুৎ তৈরি করতে পারে।  

প্রকল্পে কর্মরত প্রকৌশলীদের উদ্দেশে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী ড. ইয়াফেস ওসমান বলেন, তোমরা দ্বিতীয় সারির মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধ করে আমরা একটি দেশকে স্বাধীন করে একটি পর্যায়ে নিয়ে আসতে পেরেছি। আমরা যখন যুদ্ধ করেছি, তখন মনে হতো, আমরা মনে হয় বাঁচব না। আমাদের জীবন আমরা ত্যাগ করে যাব, আমাদের ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম তোমরা বাংলাদেশকে একটি ভিন্ন পর্যায়ে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এ কারণে তোমরা দ্বিতীয় সারির মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধ একবার হয় স্বাধীনতার জন্য। কিন্তু যেগুলো অবস্থান পরিবর্তনের জন্য হয়, সেটাও যুদ্ধ। সেই যুদ্ধে যারা সুযোগ পেয়েছ, তারা সৌভাগ্যবান।  

তার আগে রূপপুর পারমানবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ভেতরে শান্তির প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে নিউক্লিয়ার ডে-২০২১ এর শুভ উদ্বোধন করা হয়। পরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এরপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।  

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রকল্পের ভাইস প্রেসিডেন্ট এলেক্সডেইরি প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর, প্রকল্পের সাইট পরিচালক আশরাফুল ইসলাম, প্রকল্পের সাইট অফিস ইনচার্জ রুহুল কুদ্দুস, পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ঈশ্বরদী সার্কেল) ফিরোজ কবীর, ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ইমরুল কায়েস, ঈশ্বরদী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ কিরণসহ স্থানীয় সংবাদকর্মী ও রূপপুর প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সন্ধ্যায় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০৬ ঘণ্টা, নভেম্বর ৩০, ২০২১
এসআই

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa