ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ০৫ আগস্ট ২০২১, ২৫ জিলহজ ১৪৪২

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

রাশিয়ার সাইবেরিয়ায় নির্মিত হচ্ছে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০১৯ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২১
রাশিয়ার সাইবেরিয়ায় নির্মিত হচ্ছে পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র

ঢাকা: রাশিয়ার টমস্ক অঞ্চলের (দক্ষিণ–পশ্চিম সাইবেরিয়া) সেভেস্কের সাইবেরিয়ান কেমিক্যাল কম্বাইনে (রোসাটমের-সাবসিডিয়ারী টিভিইএল ফুয়েল কোম্পানি) ব্রেস্ট-অডি-৩০০ লিড-ক্যুলড ফাস্ট রিয়াক্টর সমৃদ্ধ ৩০০ মেগাওয়াট বিদ্যুত ক্ষমতা সম্পন্ন পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। এই রিয়াক্টরটির জন্যে বিশেষভাবে তৈরি করা ইউরেনিয়াম-প্লুটোনিয়াম নাইট্রাইড ফুয়েল (এমএনইউপি) দ্বারা এটি চলবে (এটিকে ফাস্ট রিয়াক্টর এর সর্বোত্তম সমাধান মনে করা হয়)।

 

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি করপোরেশন-রোসাটমের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয় ৷

এই বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি পাইলট ডেমন্সট্রেশন এনার্জি কমপ্লেক্স (পিডিইসি) এর অবিচ্ছেদ্য অংশ যাতে তিনটি পরস্পর সংযুক্ত অনন্য ব্যবস্থা; পারমাণবিক জ্বালানি উৎপাদন কেন্দ্র (ফেব্রিকেশন এবং রিফেব্রিকশন), ব্রেস্ট-অডি-৩০০ পাওয়ার ইউনিট এবং তেজস্ক্রিয় জ্বালানি পুনরায় প্রসেসিংয়ের সুবিধা থাকবে। ইতিহাসে প্রথমবারের মতো একই সাইটে নিউক্লিয়ার জ্বালানি সাইকেল সার্ভিসিং এন্টারপ্রাইজের পাশাপাশি ফাস্ট রিয়াক্টর যুক্ত পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে। রিয়াক্টরের তেজস্ক্রিয় জ্বালানি রিপ্রসেসিং করার পরে রিফেব্রিকেশনে (নতুন জ্বালানি হিসেবে প্রস্তুত করা) পাঠানো হবে, এভাবে এই কেন্দ্রকে ক্রমান্বয়ে সম্পূর্ণ স্বয়ংক্রিয় এবং বাহ্যিক সরবরাহ থেকে মুক্ত করা হবে। পারমাণবিক শিল্পে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির প্লাটফর্ম উন্নয়নের লক্ষ্যে রোসাটমের যুগান্তকারী ফ্রেমঅয়ার্ক প্রকল্প হিসেবে পিডিইসিকে নির্মাণ করা হচ্ছে।  

রোসাটমের ডিরেক্টর জেনারেল এলেক্সি লিখাচেভ বলেন, পারমাণবিক জ্বালানির রিপ্রসেসিংয়ের কল্যালে ফুয়েল বেইজ পারমাণবিক বিদ্যুৎ শিল্প বস্তুত অফুরানে পরিণত হয়ছে। একই সঙ্গে ভবিষ্যত প্রজন্মের আর স্পেন্ট ফুয়েল নিয়ে সমস্যা থাকবে না। এই প্রকল্পের সফল বাস্তবায়নের মাধ্যমে আমাদের দেশ বিশ্বে প্রথম পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রযুক্তির অধিকারী হবে যা কিনা সর্বতভাবে পরিবেশ, অভিগম্যতা, নির্ভরযোগ্যতা ও দক্ষ জ্বালানি ব্যাবহারে টেকসই উন্নয়নের সব নীতিমালার সঙ্গে সামঞ্জস্য পূর্ণ। আজ আমরা বিশ্বে পারমাণবিক প্রযুক্তি উন্নয়নের মাধ্যমে মানুষের জীবন মান উন্নয়নে আমাদের নেতৃত্বের কথা পুণর্ব্যাক্ত করি।

ব্রেস্ট-অডি-৩০০ লিড-ক্যুলড রিয়াক্টরটি প্রাকৃতিক নিরাপত্তার নীতি অনুসারে নকশা করা হয়েছে। এই রিয়াক্টরের ফিচারে মেল্ট ট্র্যাপকে ত্যাগ করা ব্যাবস্থা রাখা সহ, বড় ভ্লিউমের সাপোর্ট সিস্টেম ও নন রিয়াক্টর সরঞ্জামের সেফটি ক্লাস লোয়ার করার সুযোগ আছে। রিয়াক্টরের আভ্যন্তরীণ ও ভৌত নকশা এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যার মাধ্যমে দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্যে জনগণকে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার ব্যাবস্থা করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এই ধরনের স্থাপনা পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের সুরক্ষা দেওয়ার পাশাপাশি একে আরো বেশি তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের (বিশেষ করে স্টিম-গ্যাস প্রযুক্তি) সঙ্গে তুলনায় এটিকে আরো বেশি সাশ্রয়ী করবে।

রোসাটমের টিভিইএল ফুয়েল কোম্পানির প্রেসিডেন্ট নাটালিয়া নিকিপেলোভা বলেন, এই যুগান্তকারী প্রকল্পের বাস্তবায়নে উদ্ভাবনী রিয়াক্টরই ব্যাবহার করার পাশাপাশি নতুন প্রজন্মের পারমানবিক জ্বালানি ও ব্যাবহার করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০৯৫৬ ঘণ্টা, জুন ১১, ২০২১
এসকে/এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি এর সর্বশেষ

Alexa