ঢাকা, রবিবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ২২ রবিউস সানি ১৪৪৩

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিদর্শন করে সংসদীয় কমিটির সন্তোষ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৪৯ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৪, ২০১৯
রূপপুর বিদ্যুৎকেন্দ্র পরিদর্শন করে সংসদীয় কমিটির সন্তোষ

ঢাকা: রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের প্রকল্প পরিদর্শন করেছে জাতীয় সংসদের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। কমিটির সদস্যরা প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

শনিবার (২৩ নভেম্বর) স্থায়ী কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হকের নেতৃত্বে কমিটির সদস্য মোজাফফর হোসেন, শিরীন আহমেদ ও হাবিবা রহমান খান প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করেন।  

এতে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, অতিরিক্ত সচিব ইতি রানী পোদ্দার, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের চেয়ারম্যান মাহাবুবুল হক, প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর, প্রকল্পের উপদেষ্টা প্রকৌশলী মনিরুল ইসলাম, প্রকল্পের মুখ্য প্রশাসনিক কর্মকর্তা অলোক কুমার চক্রবর্তী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

এসময় কমিটির সদস্যদের এএসই’র ভাইস প্রেসিডেন্ট ও রূপপুর প্রকল্পের রাশিয়ান প্রকল্প পরিচালক সের্গেই লাসতোচকিন প্রকল্পের বিভিন্ন অংশের কাজের চিত্র বর্ণনা করেন।  

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় পারমাণবিক শক্তি করপোরেশেন রোসাটমের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এএসই এ প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রকল্প পরিদর্শন শেষে ইয়াফেস ওসমান বলেন, সংসদীয় কমিটির চেয়ারম্যানসহ কমিটির অন্য সদস্যরা স্বচক্ষে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের কর্মযজ্ঞ দেখলেন। এ বিশাল কর্মযজ্ঞ দেখে তারা যদি খুশি হন, তাহলে আমরাও খুশি।

কমিটির চেয়ারম্যান রুহুল হক বলেন, এর আগে এসে শুধু মাটি ভরাট দেখেছিলাম। তথ্য-উপাত্ত মুখে শুনেছিলাম। আমাদের ইঞ্জিনিয়ার ও রাশানদের কর্ম প্রচেষ্টায় ও সুন্দর ব্যবস্থাপনায় কাজের অগ্রগতি দেখে আমরা আজ অভিভূত। আমাদের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী একজন ইঞ্জিনিয়ার ও আর্কিটেক্ট। তিনি নিয়মিত এখানে এসে কাজের তদারকির কারণে প্রকল্পের কাজ সুন্দরভাবে সম্পাদিত হচ্ছে।

এসময় নিরাপত্তা বিষয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের উত্তরে রুহুল হক বলেন, জাপানের ফুকুসিমায় দুর্ঘটনার পর নতুন ব্যবস্থাপনায় বিশেষ করে ভূমিকম্প ও দুর্ঘটনার বিষয়টি মাথায় রেখে এ প্রকল্পে নিরাপত্তার ওপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। আজ প্রথম ইউনিটের পাঁচ স্তরের নিরাপত্তা বলয় স্বচক্ষে দেখে আমরা কমিটির সবাই সন্তুষ্ট।

প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর বলেন, আন্তর্জাতিক রীতিনীতি মেনে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই এ প্রকল্প থেকে জাতীয় গ্রিডে বিদ্যুৎ সঞ্চালন হবে বলে আশা করি।

এর আগে শুক্রবার (২২ নভেম্বর) সন্ধ্যায় অধ্যাপক ডা. আ ফ ম রুহুল হকের সভাপতিত্বে প্রকল্পের পারমাণবিক চুল্লি বসানোর কাজের প্রস্তুতি ও অগ্রগতি পর্যালোচনা সংক্রান্ত এক সভা অনুষ্ঠিত হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৯৪৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৩, ২০১৯
এসকে/আরবি/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa