bangla news

৪২ লাখ টন জ্বালানি তেল আমদানি করবে সরকার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-১০-৩০ ৮:২৮:৫৯ পিএম
অর্থনৈতিক বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। ছবি: বাংলানিউজ

অর্থনৈতিক বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। ছবি: বাংলানিউজ

ঢাকা: দেশের  চাহিদা মেটাতে ২০২০ সালে মোট ৪২ লাখ মেট্রিকটন পরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানির প্রস্তাবের বিষয়ে নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

বুধবার (৩০ অক্টোবর) সন্ধ্যায় সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সভাকক্ষে অর্থনৈতিক বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির ১৯তম বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। 

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব নাসিমা বেগম সাংবাদিকদের এ কথা জানান। 

তিনি বলেন, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশনের (বিপিসি) মাধ্যমে ৪২ লাখ মেট্রিকটন পরিশোধিত জ্বালানি তেল আমদানির প্রস্তাবের নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে অর্থনৈতিক বিষয়ক সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। 

‘অনুমোদিত ৪২ লাখ মেট্রিকটনের মধ্যে ৫০ শতাংশ জি-টু-জি ভিত্তিতে এবং বাকি ৫০ শতাংশ জ্বালানি তেল উন্মুক্ত আন্তর্জাতিক দরপত্রের মাধ্যমে আমদানি করা হবে।’

প্রকল্পের প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে, বাংলাদেশ পেট্রোলিয়াম করপোরেশন (বিপিসি) সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ২০১৫ সালের ২৩ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী জ্বালানি তেলের মোট চাহিদার ৫০ শতাংশ জি টু জি ভিত্তিতে এবং ৫০ শতাংশ উন্মুক্ত আন্তর্জাতিক দরপত্র আহবানের মাধ্যমে আমদানি করে আসছে। 

বিক্রয় প্রবণতা ও পর্যাপ্ত মজুদ বিবেচনায় ২০২০ সালে বিপিসির জালানি তেল আমদানির মোট চাহিদা গ্যাস অয়েল ৩৫ লাখ মেট্রিকটন, জেট এ-১ ৪ দশমিক ৬০ লাখ মেট্রিকটন, (১০ শতাংশ), গ্যাস ১ দশমিক ২০ লাখ মেট্রিকটন (১০ শতাংশ), ফার্নেস অয়েল ১.২০ লাখ মেট্রিকটন।

এ চাহিদার ৫০ শতাংশ উন্মুক্ত আন্তর্জাতিক দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে এবং অবশিষ্ট ৫০ শতাংশ জি টু জি ভিত্তিতে আটটি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে নেগোসিয়েশনের মাধ্যমে আমদানির প্রস্তাব অনুমোদন দেয় মন্ত্রিসভা কমিটি।

বাংলাদেশ সময়: ২০২৪ ঘণ্টা, অক্টোবর ৩০, ২০১৯ 
জিসিজি/এমএ

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-10-30 20:28:59