bangla news

নদী দখল করে জি-গ্যাস কোম্পানি, সাড়ে ১০ লাখ টাকা জরিমানা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৯-০৯-১৮ ৫:১১:৩৩ পিএম
কোম্পানির অবস্থান

কোম্পানির অবস্থান

খুলনা: নদী দখল করে বেজমেন্ট নির্মাণ, মেয়াদোত্তীর্ণ ফায়ার এক্সটিংগুইশার রাখাসহ বিভিন্ন অপরাধে খুলনায় এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেডের জি-গ্যাস (এলপিজি) কোম্পানিকে সাড়ে ১০ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে খুলনা জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইমরান খান অভিযান চালিয়ে এই জরিমানা করেন।

জেলার দাকোপে অবস্থিত কোম্পানিটিকে পশুর ও চুনকুড়ি নদী দখল করে বেজমেন্ট নির্মাণ, পরিবেশ রক্ষায় শতকরা ২৫ ভাগ গাছ প্লান্ট এলাকায় না থাকা ও আগুন নেভানোর জন্য ৩০ ফায়ার এক্সটিংগুইশার থাকলেও সেগুলোর মেয়াদ না থাকায় এ জরিমানা করা হয়।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানম্যাজিস্ট্রেট ইমরান খান বাংলানিউজকে বলেন, এনার্জিপ্যাক পাওয়ার জেনারেশন লিমিটেডের জি-গ্যাস ফ্যাক্টরি অবৈধভাবে পশুর ও চুনকুড়ি নদীর মাঝখানে বেজমেন্ট নির্মাণ করেছে, পরিবেশ রক্ষায় প্লান্ট এলাকায় শতকরা ২৫ ভাগ গাছ নেই, এছাড়া আগুন নেভানোর জন্য ৩০ ফায়ার এক্সটিংগুইশার থাকলেও সেগুলোর মেয়াদ নেই। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালানো হয়। অভিযানের সময় এসব বিষয়ে জি-গ্যাস কোম্পানি কর্তৃপক্ষ কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি। তাই তাদেরকে দশ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

ইমরান খান আরো জানান, দুই নদীর প্রায় ৯৩ শতক জমি দখল করে এলপিজি প্লান্ট নির্মাণ করেছে জি-গ্যাস। নদী দখল করায় পরিবেশ আইনে তাদের ১০ লাখ টাকা এবং মেয়াদোত্তীর্ণ অগ্নিনির্বাপক যন্ত্র ব্যবহার করায় আরও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে কোম্পানিটিকে।

আদালত পরিচালনার সহযোগিতায় ছিলেন খুলনা জেলা পুলিশ, এপিপিএন, পরিবেশ অধিদপ্তর, বিএসটিআই ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৭০৬ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯
এমআরএম/জেডএস

        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2019-09-18 17:11:33