bangla news

মধ্যপাড়া শিলাখনিতে একদিনে রেকর্ড পরিমাণ পাথর উত্তোলন

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০১৮-১১-১৮ ৪:৪৪:২০ পিএম
মধ্যপাড়া কঠিন শিলাখনি

মধ্যপাড়া কঠিন শিলাখনি

দিনাজপুর: দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলায় মধ্যপাড়া কঠিন শিলাখনিতে পাথর উৎপাদন দিন দিন বাড়ছে। শনিবার (১৭ নভেম্বর) তিন শিফটে ৫ হাজার ৭১৬ মেট্রিক টন পাথর উত্তোলন করে রেকর্ড গড়েছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান জার্মানিয়া ট্রেস্ট কনসোর্টিয়ামের (জিটিসি)।

রোববার (১৮ নভেম্বর) পাথর উত্তোলন কাজে নিয়োজিত জিটিসি’র নির্বাহী পরিচালক জাবেদ সিদ্দকী বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, মধ্যপাড়া খনির দায়িত্বভার গ্রহণের পর থেকে জিটিসি পাথর খনিটিকে লাভজনক করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। খনির নতুন স্টোপ নির্মাণ করে বিদেশি মেশিনারিজ যন্ত্রপাতি ও যন্ত্রাংশ স্থাপন করা হয়েছে। খনির পাথর উত্তোলন বৃদ্ধিকে গুরুত্বের সঙ্গে নিয়ে অর্ধশতাধিক বিদেশি খনি বিশেষজ্ঞ, দেশি প্রকৌশলী এবং ৭ শতাধিক খনি শ্রমিক তিন শিফটে পাথর উত্তোলন কাজে নিয়োজিত আছেন। 

প্রতিমাসে এক লাখ ২০ হাজার মেট্রিক টন পাথর উত্তোলনের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে জিটিসি গত অক্টোবর মাসে প্রায় এক লাখ ২৩ হাজার মেট্রিক টন পাথর উত্তোলন করেছে। পাথর উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রায় পৌঁছানোর ফলে খনি শ্রমিকদের বিগত মাসগুলোতে বেতন ও ওভার টাইমের সঙ্গে উৎপাদন বোনাসও দিয়েছে কোম্পানি। শনিবার তিন শিফটে পাঁচ হাজার ৭১৬ মেট্রিক টন পাথর উৎপাদন করে রেকর্ড সৃষ্টি করেছে জিটিসি।

খনি সূত্রে জানা যায়, ২০০৭ সালে মধ্যপাড়া পাথর খনি থেকে দৈনিক তিন শিফটে পাঁচ হাজার ৫০০ মেট্রিক টন পাথর উত্তোলনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে উৎপাদন কার্যক্রম শুরু করা হয়। কিন্তু খনিটি প্রায় সাত বছর ধরে তিন শিফটে পাথর উত্তোলন কার্যক্রমই শুরু করতে পারেনি। ফলে লোকসানি প্রতিষ্ঠানে পরিণত হওয়ার পরিণত হয়ে খনিটি বন্ধের উপক্রম হয়েছিল। কিন্তু জিটিসি খনির দায়িত্বভার নেওয়ার পর পাথর উৎপাদনে রেকর্ড সৃষ্টি করছেন। 

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪৪ ঘণ্টা, নভেম্বর ১৮, ২০১৮
জিপি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন :   দিনাজপুর
        ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন  

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি বিভাগের সর্বোচ্চ পঠিত

Alexa
cache_14 2018-11-18 16:44:20