ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

৫০ কোটি ডলার ঋণে রূপসায় ৮০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৯০০ ঘণ্টা, আগস্ট ২, ২০১৮
৫০ কোটি ডলার ঋণে রূপসায় ৮০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎকেন্দ্র বিদ্যুৎকেন্দ্র/ফাইল ফটো

ঢাকা: খুলনার খালিশপুরে স্থাপন করা হচ্ছে রূপসা ৮০০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র। এটি নির্মাণে ব্যয় হবে ৮ হাজার ৪৯৮ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। এর মধ্যে ৫০ কোটি ডলার বা প্রায় ৪ হাজার কোটি টাকা ঋণ দিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)।

বৃহস্পতিবার (২ আগস্ট) শেরে বাংলানগরে বাংলাদেশ সরকার ও এডিবির মধ্যে ঋণচুক্তি সই হয়েছে। সরকারের পক্ষে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মুহাম্মদ আলকামা সিদ্দিকী ও এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ ঋণচুক্তিতে সই করেন।

প্রকল্পটির মোট ব্যয়ের মধ্যে সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ২ হাজার ৪৬০ কোটি ৭৭ লাখ টাকা, উন্নয়ন সহযোগীদের ঋণ ৫ হাজার ৯৮৭ কোটি ৮৬ লাখ টাকা এবং বাস্তবায়নকারী সংস্থার নিজস্ব তহবিল থেকে ৫০ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে।

বিদ্যুৎকেন্দ্রটি নির্মাণ করা হলে বিদ্যুৎ উৎপাদনের মাধ্যমে ক্রমবর্ধমান চাহিদা পূরণে সহায়ক হবে। তাছাড়া পর্যাপ্ত ও নির্ভরযোগ্য বিদ্যুৎ নিশ্চিত করে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে সহায়ক ভূমিকা রাখার পাশাপাশি স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত বিদ্যুতের মাধ্যমে সিস্টেম লস কমানো সম্ভব হবে।

প্রকল্পটি সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে ২০২২ সালের জুনের মধ্যে এটি বাস্তবায়ন করবে নর্থ-ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি লিমিটেড (নওপাজেকো)। প্রকল্পের আওতায় খুলনায় ৮০০ মেগাওয়াটের কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপন করা হবে। প্রকল্পটি দেশে বিদ্যুৎ চাহিদা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। তাছাড়া সিস্টেম লস কমানোও সম্ভব হবে। এজন্য পরিকল্পনা কমিশন প্রকল্পটি অনুমোদনের সুপারিশ করেছে।

দেশের ক্রমবর্ধমান বিদ্যুতের চাহিদা পূরণ এবং সর্বস্তরে নির্ভরযোগ্য বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতে সরকার স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদী বিভিন্ন পরিকল্পনা নিয়েছে।

সরকারের এই পরিকল্পনার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে নর্থ-ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি লিমিটেড খুলনা নিউজপ্রিন্ট মিলস লিমিটেডের পরিত্যক্ত ৫০ একর জমিতে রূপসা ৮০০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণের পরিকল্পনা নিয়েছে। প্রস্তাবিত বিদ্যুৎকেন্দ্রটিতে প্রাথমিক জ্বালানি হিসেবে প্রাকৃতিক গ্যাস ও বিকল্প জ্বালানি হিসেবে হাইস্পিড ডিজেল ব্যবহার করা হবে।

এডিবির ঋণ ৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ডসহ ২৫ বছরে পরিশোধযোগ্য। ঋণের সুদহার ০ দশমিক ১০ শতাংশ।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৪৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ০২, ২০১৮
এমআইএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa