ঢাকা, বুধবার, ২০ আশ্বিন ১৪২৯, ০৫ অক্টোবর ২০২২, ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

মজুদ শেষ বড়পুকুরিয়া কয়লা উত্তোলন বন্ধ

উপজেলা করসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩২৬ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১৮
মজুদ শেষ বড়পুকুরিয়া কয়লা উত্তোলন বন্ধ বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি

পার্বতীপুর (দিনাজপুর): দিনাজপুরের পার্বতীপুরে বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির উৎপাদনশীল ১২১০ নম্বর কোল ফেইসে উত্তোলনযোগ্য কয়লার মজুদ শেষ হয়ে যাওয়ায় ছয়দিন ধরে কয়লা উত্তোলন বন্ধ রয়েছে।

এরপর ১৩১৪ নম্বর ফেইস থেকে কয়লা উত্তোলন করা হবে। ১২১০ নম্বর ফেইসে ব্যবহৃত কয়লা উত্তোলনের যন্ত্রপাতি সরিয়ে ১৩১৪ নম্বর ফেইসে স্থাপন করে পুনরায় কয়লা উত্তোলনে যেতে দেড় থেকে দুই মাস সময় লাগবে বলে খনি সূত্রে জানা যায়।

বৃহস্পতিবার (২১ জুন) বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানি লিমিটেডের (বিসিএমসিএল) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী হাবিব উদ্দিন আহমেদ বাংলানিউজকে এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, খনির কয়লা উত্তোলন বন্ধের বিষয়টি একটি স্বাভাবিক প্রক্রিয়া। গত ১৫ জুন উৎপাদনশীল ১২১০ নম্বর কোল ফেইসে উত্তোলনযোগ্য কয়লার মজুদ শেষ হয়ে যায়। ফলে ১৬ জুন থেকে খনির উৎপাদন বন্ধ রয়েছে। একটি ফেইসের কয়লা উত্তোলন শেষ হলে ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি সরিয়ে নিয়ে নতুন ফেইসে স্থাপনের জন্য ৪০-৪৫ দিন সময় লাগে।

এছাড়া ব্যবহৃত যন্ত্রপাতি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে ক্রটিবিচ্যুতি ধরা পড়লে মেরামতের জন্য বাড়তি সময়ের প্রয়োজন হয়। এজন্য কয়লা উত্তোলন সাময়িক বন্ধ থাকে। সব প্রস্তুতি শেষ করে আগস্ট মাসের প্রথমার্ধে ১৩১৪ নম্বর ফেইস থেকে কয়লা উত্তোলন শুরু করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

২০ জুন পর্যন্ত খনির কোল ইয়ার্ডে এক লাখ ৮০ হাজার মেট্রিক টন কয়লা মজুদ ছিলো বলেও তিনি জানান।

বাংলাদেশ সময়: ১৯২৫ ঘণ্টা, জুন ২১, ২০১৮
জিপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa