ঢাকা, শুক্রবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২০ মে ২০২২, ১৮ শাওয়াল ১৪৪৩

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

জ্বালানিখাতে দেশীয় প্রতিষ্ঠানের অবদান রাখার সুযোগ এসেছে

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২২৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৭
জ্বালানিখাতে দেশীয় প্রতিষ্ঠানের অবদান রাখার সুযোগ এসেছে প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ (ফাইল ফটো)

ঢাকা: দেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি চাহিদা পূরণে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর আরও অবদান রাখার সুযোগ তৈরি হয়েছে বলে মনে করেন বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।

রোববার (১০ ডিসেম্বর) বিদ্যুৎ ভবনে সামিট গাজিপুর-২ পাওয়ার লিমিটেডের সঙ্গে বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের (পিডিবি) বিদ্যুৎ ক্রয় চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী এ মনোভাব ব্যক্ত করেন।

নসরুল হামিদ বলেন, নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ দেওয়া এখন সময়ের ব্যাপার।

৩৬টি উপজেলা শতভাগ বিদ্যুতায়ন করা হয়েছে, ৫৬টি অপেক্ষমান। এভাবেই ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ৪৬০টি উপজেলায় শতভাগ বিদ্যুতায়ন করে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়া হবে।

তিনি বলেন, দেশের বিদ্যুৎ ও জ্বালানি চাহিদা পূরণে স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর আরও অবদান রাখার সুযোগ তৈরি হয়েছে। পাবলিক সেক্টরেরও সক্ষমতা বৃদ্ধি পেয়েছে যে কোনো পরিস্থিতি মোকাবেলা করার। বিগত কয়েক বছর গড়ে ৯০০-১০০০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ সংযোজিত হলেও আগামী বছর তা বেড়ে দাঁড়াবে ৩০০০ মেগাওয়াট।  
 
চুক্তি অনুযায়ী, পিডিবি ১৫ বছর ১০.৬০ সেন্টস/ইউনিট হারে বিদ্যুৎ কিনবে। নয় মাসের মধ্যে প্রতিষ্ঠানটি থেকে বিদ্যুৎ পাওয়া যাবে।  

চুক্তিতে সই করেন পিডিবির সচিব মীনা মাসুদ উজ্জামান ও সামিট গাজিপুর-২ পাওয়ার লিমিটেডের মহাপরিচালক মো. মোজ্জাম্মেল হোসেন।  

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বিপিডিবির চেয়ারম্যান খালেদ মাহমুদ, সামিট গ্রুপের চেয়ারম্যান মুহাম্মদ আজিজ খান বক্তব্য রাখেন।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৭
এইচএ/

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa